তালার চল্লিশা বিলের পানি নিষ্কাশনে বাঁধা শতশত মানুষ পানিবন্দী


প্রকাশিত : সেপ্টেম্বর ২৫, ২০১৯ ||

ইলিয়াস হোসেন, তালা (সদর): তালার চল্লিশা বিলের পানি বন্ধ করে ঘের করায় শতশত মানুষ পানিন্দী হয়ে পড়েছে। উপজেলার ইসলামকাটি ইউনিয়নে অবস্থিত এ বিলের পানি নিষ্কাশনের একমাত্র কালভার্টের মুখে বাঁধ দেওয়ায় কৃত্রিম জলাবদ্ধতার সৃষ্টি হয়েছে বলে জানা যায়।
এদিকে কৃত্রিম জলাবদ্ধতায় উপজেলার ইসলামকাটী ইউনিয়নের কাজিডাঙ্গা, ভবানীপুর, ঘোনা, নারায়নপুর, ঢ্যামশাখোলা, গোনডাঙ্গাসহ কয়েটা গ্রামের কিছু মানুষ এখনো পানিবন্দী আছে।
এলাকাবাসির লিখিত অভিযোগে জানা যায়, ইসলামাকাটি ইউনিয়নের এ পানি নিষ্কাশিত হবার জন্য চল্লিশার বিলে দুটি কালভার্ট রয়েছে। এ কালভার্ট দুটির মুখ বন্ধ করে প্রভাবশালী ঘের ব্যবসায়ী মঞ্জুর চেয়ারম্যান ঘের করায় এখানকার কিছু মানুষ এখন পানিবন্দী হয়ে পড়েছে।
এঘটনায় এলাকাবাসী বলছে, প্রায় সপ্তাহখানেক আগে উপজেলা নির্বাহী অফিসারের কাছে একটি অভিযোগ দিলেও এখনো তার কোন প্রতিকার হয়নি। তবে উপজেলা নির্বাহী অফিসার ইকবাল হোসেন পানিবন্দী মানুষের অভিযোগ প্রাপ্তির বিষয়টি স্বীকার করে বলেন, আমি অভিযোগ পাওয়া মাত্রই স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদ চেয়রম্যানকে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের নির্দেশ দিয়ে লিখিত চিঠি পাঠিয়েছি।
স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান সুভাষ চন্দ্র সেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার কর্তৃক স্বাক্ষরিত চিঠি প্রাপ্তির বিষয়টি স্বীকার করে বলেন, আমি গত দুই তিন দিন আগে চিঠিটি হাতে পেয়েছি এবং হাতে পাওয়া মাত্রই সংশ্লিষ্ট এলাকা পরিদর্শন করে অতি দ্রুত সময়ে নিষ্কাশনের প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলে সকলকে জানিয়েছি। তিনি আরো বলেন, আগামী শুক্রবার জুম্মাবাদ গ্রামের জনগণের সাথে বসে কিভাবে পানি নিষ্কাশন করা যায়? সে ব্যাপারে প্রয়োজনীয় সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হবে।
এঘটনায় অভিযুক্ত ঘের ব্যবসায়ী মঞ্জুর চেয়ারম্যানের মোবাইল ফোনে যোগাযোগ করার চেষ্টা করা হলে তার ব্যবহৃত ফোন থেকে বলা হয় ‘আপনি যে নাম্বারে কল করেছেন তা এই মুহূর্তে বন্ধ আছে…’।