আর্কাইভ সেপ্টেম্বর ২৮, ২০১৯


থেমে যাও প্রৌঢ় পৃথিবী



  জাফর ওবায়েদ   থামো। আর কত! এইবার থেমে যাও।থেমে যাও প্রৌঢ় পৃথিবী।   কার নর্তকী তুমি! কার গণিকা?   চারপাশে ক্ষুধার্ত চোখ। তৃষ্ণার্ত ঠোঁট। রক্তাক্ত হৃদয়। আইন-আদালত ও মানবতার কঙ্কালসার দেহ। বায়ুর শরীরে ধুলোবালি ধোঁয়া, বারুদের ঘ্রাণ। এখানে ওখানে রক্ত, প্রাণের অপচয়। মদের টেবিলে যারা তোমাকে খেলে, তারা বুঝি...

পলল জল



  জামান আতিক উদাস বাতাস হয়ো না কখনো – মাতাল বাতাসে ভেজা ভেজা জলধ-   রক্তের ভেতর বয়ে চলে লাবণ্যবতী ইছামতী-বেত্রবতী-   শৈশব থেকে যখন প্রেম কাকে বলে জানি না অথবা ধরো—কিশোরীর গালে কীভাবে আলতো করে চুমু খেতে হয়- আদরের উষ্ণতায়- তারাও নাকি মোমের মতো গলে গলে যায়- এসব শিখিনি...

জীবননামা



গৌতম মিত্র বাস্তবের যে ক’জন মহিলার ভাবনা জীবনানন্দ দাশকে বারবার আলোড়িত করেছে,ঘাড়ে থাবা বসিয়ে লিখিয়েছে, স্বপ্ন কীভাবে দেখতে হয় শিখিয়েছে, মনিয়া তাদের মধ্যে অন্যতম। জীবনানন্দ দাশের ডায়েরিতে সংক্ষেপে মনিয়া বা মনির পরিচয় এইরকম।পর্তুগিজ পাদ্রী বাবার ঔরসে ও বাংলাদেশের মায়ের গর্ভে জন্ম ‘নীলনয়না’ মনির।মনির ছোটো বয়সে পাদ্রী বাবা বেপাত্তা হলে,অনেক ঘাটের...

দত্তা



তাপসী দত্ত মাঘী পূর্ণিমার দিন , কুয়াশায় মোড়া ভোর। জোর কদমে শঙ্খ, কাঁসর, ঘণ্টা সহযোগে পুজো চলছে দেবী ইয়েলাম্মার। ধূপ ধুনোর ধোঁয়ায় ইয়েলাম্মার বীভৎস মূর্তি যেন আরও বীভৎস হয়ে উঠেছে।দেবীর লাল চোখ দিয়ে যেন ঠিকরে বেরোচ্ছে আগুন। সেই আগুনই হয়ত ভস্ম করে দেবে সামনে জড়ো হওয়া পঞ্চাশজন হবু গণিকা থুরি...

জেলার পিতা সমীপে



ছড়াকার নাজমুল হাসান জেলার পিতা ডিসি স্যার সহ্যশক্তি নেই যে আর দোকান ভাঙার খবরে- ঘাড়ের উপর অনেক ঋণ দুঃশ্চিন্তায় কাটছে দিন এক পা যেন কবরে। টেনশনে আজ ধুকে ধুকে হচ্ছে হার্টের ব্যারাম, কোন কাজে মন বসে না নেই যে কোন আরাম। দুঃস্বপ্ন করছে গ্রাস মনের মাঝে সদা ত্রাস ভাঙলো দোকান...