কলারোয়ায় যুবলীগ নেতাকে গাছে বেঁধে নির্যাতন


প্রকাশিত : অক্টোবর ৩, ২০১৯ ||

নিজস্ব প্রতিনিধি: কলারোয়ায় দেয়াড়া ইউনিয়ন যুবলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মাহাবুবর রহমান (২৮)কে রাত ১টার দিকে গাছে বেঁধে নির্যাতন করেছে সন্ত্রাসীরা। মৃত ভেবে ফেলে রেখে যায় স্থানীয় গাজীর ইটভাটার রাস্তায়। পরে তাকে পথচারীরা উদ্ধার করে কলারোয়া সরকারী হাসপাতালে ভর্তি করে। আহত মাহাবুবর রহমান উপজেলার খোরদো গ্রামের গোলাম মোস্তফা গাজীর ছেলে। এ ঘটনায় বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় কলারোয়া থানায় ২ জনের নামে একটি অভিযোগ দায়ের হয়েছে। অভিযোগ সূত্রে জানা গেছে, কলারোয়ায় দেয়াড়া ইউনিয়ন যুবলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মাহাবুবর রহমান গাজীর সাথে রাজনৈতিক ভাবে মতবিরোধ আছে একই গ্রামের আব্দুর রউফ গাজী ও রফিক গাজীর সাথে। তারা দীর্ঘ দিন ধরে মাহাবুবর রহমান গাজী ও তার পরিবারবর্গকে অপরাধমূলক ভাবে ভয়ভীতি ও খুন জখমের হুমকি দিয়ে আসছে। এরই জের ধরে বুধবার দিবাগত রাত ১টার দিকে মাহাবুবর রহমান গাজী তার খোরদো গাজীর ইটভার কাছে ঘের থেকে বাড়ি ফেরার পথে ওই দুই ব্যক্তি পূর্ব পরিকল্পিতভাবে দেশীয় অস্ত্র শস্ত্রে সজ্জিত হয়ে পথ গতিরোধ করে। এসময় তারা দেশীয় অস্ত্রের মুখে তাকে ধরে নিয়ে একটি গাছের সাথে বেঁধে এলোপাতাড়ীভাবে মারপিট করে শরিরের বিভিন্ন স্থানে ভেঙে ও কেটে মারাত্বক জখম প্রাপ্ত হয়ে জ্ঞান হারিয়ে ফেলে। এসময় তার কাছ থেকে নগদ ৫০ হাজার টাকা তারা ছিনিয়ে নেয়। পরে মৃত ভেবে তারা ওই স্থানে ফেলে রেখে চলে যায়। এ ঘটনায় দেয়াড়া ইউনিয়ন যুবলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মাহাবুবর রহমান বাদী হয়ে কলারোয়া থানায় ওই এলাকার আব্দুর রউফ গাজী ও রফিক গাজীকে আসামী করে একটি অভিযোগ দায়ের করেছেন।