সাংবাদিকদের কন্ঠরোধ করার অপচেষ্টাকারীদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়ার দাবি


প্রকাশিত : October 4, 2019 ||

দৈনিক পত্রদূত ও কালের চিত্রের বিরুদ্ধে মামলায় কলারোয়া রিপোটার্স ক্লাবের উদ্বেগ
নিজস্ব প্রতিনিধি: পত্রিকায় সংবাদ প্রকাশকে কেন্দ্র করে সাতক্ষীরা থেকে প্রকাশিত দৈনিক পত্রদূত ও দৈনিক কালের চিত্র পত্রিকার সম্পাদকসহ ৬জন সাংবাদিকদের নামে ডিজিটাল আইনে মামলার ঘটনায় তীব্র নিন্দা ও গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করেছে কলারোয়া রিপোর্টার্স ক্লাব।
শুক্রবার সন্ধ্যায় কলারোয়া রিপোর্টার্স ক্লাবের সভাপতি আজাদুর রহমান খান চৌধুরী পলাশের সভাপতিত্বে এক জরুরী সভায় এঘটনায় উদ্বেগ ও নিন্দা জানানো হয়। একইসাথে সাংবাদিকদের কন্ঠরোধ করার অপচেষ্টাকারীদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়ার দাবি জানানো হয়। সভা শেষে ক্লাবের এক যৌথ বিবৃতিতে নেতৃবৃন্দ বলেন, প্রয়াত মুক্তিযোদ্ধা স. ম আলাউদ্দীনের কন্যা ও সাতক্ষীরা থেকে প্রকাশিত ‘দৈনিক পত্রদূত’ পত্রিকার সম্পাদক লায়লা পারভীন সেঁজুতি ও ‘দৈনিক কালের চিত্র’ পত্রিকার সম্পাদক ও সাতক্ষীরা প্রেসক্লাবের সভাপতি মুক্তিযোদ্ধা আবু আহমেদসহ ৬ সাংবাদিকের বিরুদ্ধে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা দায়েরের ঘটনা অনভিপ্রেত। অবিলম্বে এই হয়রানীমূলক মামলা প্রত্যাহারের দাবি জানানো হয়। বিবৃতিদাতারা হলেন, কলারোয়া রিপোর্টার্স ক্লাবের সভাপতি দৈনিক ইত্তেফাকের কলারোয়া সংবাদদাতা আজাদুর রহমান খান চৌধুরী পলাশ, সাধারণ সম্পাদক দৈনিক কালের কন্ঠের সাতক্ষীরা জেলা প্রতিনিধি মো. মোশাররফ হোসেন, সহ-সভাপতি চ্যানেল এস টিভির প্রতিনিধি ও দৈনিক খোলা কাগজের কলারোয়া প্রতিনিধি এস.এম জাকির হোসেন, এম. এ কাসেম, ক্লাবের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক ও দৈনিক আমাদের সময়ের কলারোয়া প্রতিনিধি মোস্তাক আহম্মেদ, সাংগঠনিক সম্পাদক মোজাফ্ফর হোসেন পলাশ, সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক এসএম ফারুক হোসেন, কোষাধ্যক্ষ দৈনিক গ্রামের কাগজের প্রতিনিধি মোস্তফা হোসেন বাবলু, প্রচার সম্পাদক জাহিদুল ইসলাম জাহিদ, দপ্তর সম্পাদক আসাদুজ্জামান ফারুকী, সমাজ কল্যান সম্পাদক দৈনিক ঢাকা প্রতিদিনের মো. গোলাম রসুল, ক্রীড়া, সংস্কৃতি ও সাহিত্য সম্পাদক বাংলাদেশ প্রতিদিনের কলারোয়া প্রতিনিধি আরিফুল হক চৌধুরী, নির্বাহী সদস্য দৈনিক নয়া দিগন্তের শামসুর রহমান লাল্টু, দৈনিক নওয়াপাড়া’র কলারোয়া প্রতিনিধি তাজউদ্দীন আহমদ রিপন, প্রজন্মের ভাবনা’র এমএ আজিজ দৈনিক কালের চিত্রের জিএম জিয়া, ও পত্রদূতের আইয়ুব আলী, দৈনিক যুগান্তরের মো. মোজাহিদুল ইসলামসহ ক্লাবের কর্মকর্তা ও সকল সদস্যরা।