বুনো কবিরের বিরুদ্ধে রিপোর্ট প্রকাশ করায় পত্রদূত হটকেক


প্রকাশিত : অক্টোবর ৬, ২০১৯ ||

নিজস্ব প্রতিনিধি: কবিরুল ইসলাম ওরফে বুনো কবিদের বিরুদ্ধে পত্রদূতে রিপোর্ট প্রকাশ হওয়ার এলাকায় মানুষের মধ্যে স্বস্তি ফিরে এসেছে। বিষয়টি টক অফ দ্যা টাউনে পরিণত হয়েছে। সরকারি কলেজ মোড় এলাকায় দৈনিক পত্রদূত কপি না পেয়ে ফটোকপি করে বিলি করছে অনেকে। কবির এবং তার সাঙ্গ-পাঙ্গদের কারণে ক্ষতিগ্রস্ত ব্যক্তিরা পত্রদূতকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন। এদিকে তার বিরুদ্ধে রিপোর্ট প্রকাশ করায় সাংবাদিকদের দেখে নেওয়ার হুমকি দিচ্ছে কবির। রিপোর্ট প্রকাশ করার পর সাংবাদিকসহ ৭ জনের বিরুদ্ধে মিথ্যা টাকা ছিনতাই ও স্ত্রীর শীতলতাহানির অভিযোগ দিতে গেলে সেটা গ্রহণ করেনি পুলিশ।
নাক প্রকাশে অনিচ্ছুক এলাকার একাধিক ব্যক্তি বলেন, কবিরের অত্যাচারে এলাকার মানুষ অতিষ্ঠ হয়ে উঠেছিল। এলাকায় চাঁদাবাজি, জমি দখল পুলিশের ভয় দেখিয়ে মানুষের কাছ থেকে টাকা নেওয়াসহ বিভিন্ন অপরাধমূলক কর্মকান্ডে জড়িত। তার সুদি ব্যবসার কারণে অনেক মানুষ নি:স্ব হয়ে এলাকা ছেড়ে চলে গেছে। কবির এবং তার স্ত্রীর কাছ থেকে কেউ টাকা নিলে সেই টাকা আর শেষ হয় না। তাদের কথা আসল দরকার নেই সুদ দিলে হবে।
কাটিয়া ফাঁড়ির এসএআই নাসির বলেন, কবিরের বিষয় শুনেছি এলাকায় তার বিরুদ্ধে ব্যাপক অভিযোগ। কবির অন্যের জমি দখল করতে গেলে এলাকাবাসী তাকে বাঁধা দেয়। শান্তি শৃঙ্খলা বজায় রাখা আমাদের কাজ। জমা-জমি সংক্রান্ত বিষয়ে কোন কিছু করার এখতিয়ার আমাদের নেই। এই বিষয়টি ওসি স্যার প্রথম থেকে জানেন। ওই ঘটনা ঘটার কিছু সময়ের মধ্যে হাজির হয়েছিলাম। কবির অভিযোগ দিতে আসলে সেটা গ্রহণ করা হয়নি।
উপজেলা নির্বাহী অফিসার দিবাশিষ চৌধুরী বলেন, এই বিষয়টি আমার জানা নেই। তবে ভুক্তভোগীরা অভিযোগ দিলে সরকারি কলেজ মোড় এলাকায় যারা সুদের ব্যবসা করে তাদের বিরুদ্ধে যথাযথা ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।