কলারোয়ায় মসজিদের অংশে যাত্রী ছাউনি নির্মাণের অপচেষ্টা বন্ধের দাবিতে বিভিন্ন দপ্তরে অভিযোগ


প্রকাশিত : অক্টোবর ১০, ২০১৯ ||

নিজস্ব প্রতিনিধি: কলারোয়ায় মসজিদের অংশে যাত্রী ছাউনির নির্মাণের অপচেষ্টার প্রতিকার চেয়ে সাতক্ষীরা জেলা প্রশাসক, জেলা পরিষদ চেয়ারম্যানসহ বিভিন্ন দপ্তরে অভিযোগ দায়ের করেছেন মসজিদের সভাপতি। বৃহস্পতিবার কলারোয়ার গয়ড়া বাজার জামে মসজিদের সভাপতি মুক্তিযোদ্ধা শাহাজান আলী বিষয়টির বিরুদ্ধে দ্রুত ব্যবস্থা গ্রহণের দাবিতে এ অভিযোগ দায়ের করেন।

অভিযোগ সূত্রে জানা গেছে, কিছুদিনপূর্বে হিজলদী গ্রামের সহিদুল ইসলামের পুত্র ও চন্দনপুর ইউপি চেয়ারম্যান মনিরুল ইসলাম গয়ড়া বাজার জামে মসজিদের সামনের কিছু জায়গা দখল করে ভবন নির্মাণ করেন।

এঘটনায় মুক্তিযোদ্ধা শাহাজাহান অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্টেটের আদালতে মামলা দায়ের করে। পরবর্তীতে ওই মামলা থেকে অব্যহতি পাওয়ার জন্য মসজিদের সামনের অংশে ছাদ নির্মাণ করে দেওয়ার শর্তে মামলা তুলে নিতে রাজি হন তিনি। শর্ত অনুযায়ী মসজিদের সামনের অংশে ছাদ নির্মাণ করেন চেয়ারম্যান মনিরুল ইসলাম। কিন্তু নির্মাণের পরপরই মসজিদের পবিত্রতার কথা চিন্তা না করেই মসজিদের সামনের অংশে (মসজিদের গায়ে) পিলারে সাথে এলজিএসপি-৩ ২০১৮-১৯ অর্থ বছরে, গয়ড়া বাজার আকবরের চায়ের দোকানের পাশে যাত্রী ছাউনি নির্মাণ প্রকল্পের একটি নাম ফলক স্থাপন করেন। সেখানে আকবরের চায়ের দোকানের পাশে উল্লেখ করা হয়েছে। অথচ সেটি লাগানো হয়েছে মসজিদের পিলারের সাথে। প্রকৃতপক্ষে মসজিদের পবিত্রতা রক্ষা না করে ওই মনিরুল ইসলাম মসজিদের অংশটুকু যাত্রী ছাউনী হিসেবে নাম করণের অশুভ পায়তারা চালিয়ে যাচ্ছেন। সেখানে ছাদ নির্মাণের জন্য মসজিদ কমিটির কাছ থেকে ১লক্ষ টাকাও নিয়েছে মনিরুল ইসলাম। এঘটনায় এলাকার মুসুল্লীদের মধ্যে তীব্র ক্ষোভের সঞ্চার হয়েছে। ওই বিষয়কে কেন্দ্র করে এলাকায় যে কোন সময় বড়ধরনের সংঘর্ষ হতে পারে। এবিষয়ে দ্রুত ব্যবস্থা গ্রহনের দাবি জানিয়েছেন মসজিদ কমিটির সভাপতি মুক্তিযোদ্ধা শাহাজান আলী।