একটি সন্ধ্যে


প্রকাশিত : অক্টোবর ১১, ২০১৯ ||

সুমন কুমার ঘোষ
এখানে আকাশের নিচে মেঘ ভেসে বেড়াচ্ছে
কালো রংয়ের আবার কখনো কখনো সাদা রংয়েরও।
মৃদু শীতল বাতাস দোলা দিয়ে যাচ্ছে কাশফুলের বাগানে
আর আমার হৃদয়ে
বাতাসে নড়ে চড়ে উড়ে উড়ে
ঘুরে বেড়াচ্ছে মেঘেরা।

ওই দূরে কয়েকজন কৃষক ব্যস্ত
তাদের মুখের ভাষা আমার কাছে দুর্বোধ্য
তবে তাদের ঘরে ফেরার তাড়া আছে
ঝাক বেধে উড়ে গেল ঘরমুখো পাখিদের ঝাক।
সারাদিন কাটিয়েছে এই বিলে
এবার ঘরে ফেরার পালা
বাসাতে পথচেয়ে আছে হয়ত নিষ্পাপ ছানারা।

মুয়াজ্জিনের সুর বাতাসে ভেসে আসছে
দিবালোকের অবসান হলো বোধহয়
গোধুলির আকাশ রঙীন হলো না আজ
মেঘেরা তাদের অধিকারে নিয়ে নিয়েছে
কালো মেঘ দেখতেও খুব ভালো লাগছে

গ্রামের দিক থেকে ধোঁয়া উড়ছে
বোধহয় কৃষানী মশামুক্ত করে গরুগুলোকে
গোয়ালে বেধে রাখছে সন্তর্পনে।

ঘরে ফিরছে সবাই পাখি, কৃষক এমনকি
মেঘেরাও।
না না মেঘেরা আবার কোথায় ফিরবে
সারা আকাশটাই তো ওদের ঘর।

শুধু তোমার জন্য
আবুল কাশেম
আমি মারিয়ানা ট্রেঞ্চে যেতে চাই,
যেতে চাই হেডিসের কাছে।
অমরত্বের একটি মালাও যদি পাই,
আমি তোমাকে দেব।

নায়াগ্রা জলপ্রপাতের ঘোড়ার খুরের ছবি,
আমি তুলে এনেছি,
শুধু তোমারি জন্য।
আমি তোমার সাথে
কু-লী পাঁকানো ধোয়ার মত জলকনায় ভিজব বলে,
আর উদ্দাম জলরাশিতে ঝাপাবো বলে,
আবার জলের ছটায়, ভরা কুয়াশায় ভাসব বলে,
ব্যর্থ মনোরথে, ফিরে এসেছি বহুবার।

আমি মাড়িয়েছি বহু মেঠোপথ,
শেষ বিকেলের নুয়ে পড়া ঘাষ,
নাম না জানা মেঠো ফুলের সুভাষ,
ঝিরিঝিরি বাতাসের নতমুুখী সরিষার ক্ষেত
অথবা
কুয়াশা ঘেরা সারি সারি পাইন।
আমি ছুঁয়ে দেখিনি কিছুই
শুধু তোমার সাথে দেখব বলে।