ত্যাগী নেতা-কর্মিদের মূল্যায়ন করা হলেই দল সুসংগঠিত হবে: এড. পলাশ


প্রকাশিত : অক্টোবর ১৩, ২০১৯ ||

জাতীয় পর্যায়ে সাংগঠনিক ক্ষেত্রে বিশেষ অবদান রাখার জন্য বঙ্গবন্ধু পেশাজীবী পরিষদের কেন্দ্রীয় কমিটির ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক এড. আল মাহমুদ পলাশকে জননেত্রী শেখ হাসিনা সম্মাননা-২০১৯ পদক প্রদান করায় বঙ্গবন্ধু পেশাজীবী পরিষদের সাতক্ষীরা পৌর ১ ও ৪নং ওয়ার্ড শাখা নেতৃবৃন্দ গত রবিবার বিকালে সংগঠনের জেলা কার্যালয়ে উপস্থিত হয়ে এড. আল মাহমুদ পলাশকে অভিনন্দন জানিয়ে ফুলেল শুভেচ্ছা বিনিময় করেছেন। অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন বঙ্গবন্ধু পেশাজীবী পরিষদের সাতক্ষীরা জেলা সাধারণ সম্পাদক মো.আব্দুর রাজ্জাক, জেলা সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক আওছান হাবিব, কুটির শিল্প সম্পাদক মোছাক সরদার, পৌর সভাপতি আসাদুজ্জামান লাভলু, সাধারণ সম্পাদক মো. জাহাঙ্গীর আলম, সাংগঠনিক সম্পাদক ডিএম রফিকুল ইসলাম, সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক খলিলুর রহমান।

পৌর ১নং ওয়ার্ড সভাপতি আনারুল ইসলাম, সহ-সভাপতি মোসলেম আলী, সাধারণ সম্পাদক মো. ইদ্রিস আলী, সাংগঠনিক সম্পাদক জাহিদ হাসান, মামুন আহমেদ, পৌর ৪নং ওয়ার্ড সভাপতি আবুল হোসেন বাবু, সাধারণ সম্পাদক মুছা গাইন, সাংগঠনিক সম্পাদক বিপ¬ব হোসেন প্রমুখ।

নেতৃবৃন্দের উদ্দ্যেশে এড. পলাশ বলেন, প্রেষণা ছাড়া উন্নয়ন সম্ভব নয়। কাক্সিক্ষত উন্নয়নের লক্ষ্যে পৌছাতে হলে ত্যাগের বিকল্প নেই। ত্যাগী নেতা-কর্মিদেরকে মূল্যায়ন করলেই দল দ্রুতগতিতে সাংগঠনিক ভাবে সু-সংগঠিত হবেই। এটাই বাস্তবতা। বঙ্গবন্ধু পেশাজীবী পরিষদ দলের প্রত্যেক ত্যাগী নেতা-কর্মিদেরকে গঠণতান্ত্রিক পদ্ধতিতে মূল্যায়ন করা হয়ে থাকে। তাই সংগঠনকে গতিশীল আনায়নসহ আগামী দিনে মুজিব শতবর্ষে ঘোষিত কর্মসূচি স্বত:স্ফুর্তভাবে পালনের জন্য বিভিন্ন উদ্যোগ গ্রহণ করবার জন্য আহবান জানানো হয়। প্রেস বিজ্ঞপ্তি