এবার পুলিশের নাম ভাঙিয়ে চাঁদাবাজীর অভিযোগ স্বয়ং জেলা পুলিশের


প্রকাশিত : অক্টোবর ১৭, ২০১৯ ||

অনলাইন ডেস্ক: পুলিশের নামে চাঁদাবাজীর অভিযোগ করেছে খোদ সাতক্ষীরা জেলা পুলিশ। আজ রাত সাড়ে ৮টার দিকে সাতক্ষীরা জেলা পুলিশের ফেসবুক পেজে একটি সতর্কতামূলক পোস্টে এই অভিযোগ করা হয়েছে। Sp Satkhira District  (এসপি, সাতক্ষীরা ডিস্ট্রিক) নামে জেলা পুলিশের এই পেজে “সতর্কতামূলক পোস্ট, পুলিশের নামে অপরাধ কার্যক্রম” শীর্ষক পোস্টটি হুবুহু তুলে ধরা হলো: “ফেসবুকের মাধ্যমে পরিচিত একজন মেসেজ করে জানালেন, আজ বিকেলে (১৭/১০/১৯) সাতক্ষীরার ভোমরা থেকে মামুন নামে একজনকে পুলিশ আটক করেছে, তার স্ত্রীর মোবাইলে ফোন করে ৩০ হাজার টাকা দাবি করছে, না হয় ফেন্সিডিল দিয়ে চালান দিবে। আমি খোজ নিতে শুরু করলাম, কিন্তু মামুন নামের কাউকে পুলিশ ধরেনি। প্রাথমিকভাবে নিশ্চিত হয়ে তাকে জানালাম, আমাদের কেউ তাকে গ্রেপ্তার বা আটক করেনি। কিন্তু যারা আটক করেছে তারা পুলিশের নাম দিয়ে ৩০ হাজারের বেশি টাকা চাদা চেয়েই চলেছে। আটক ব্যক্তির নাম্বার থেকে তার স্ত্রীর নাম্বারে টাকা চায়। অন্য কোন নাম্বারের ফোন ধরছে না। ফোন করা ব্যক্তি ততক্ষণে সরকারের বিভিন্ন পর্যায়ে জানাল, পুলিশ মামুনকে আটক করে ৩০ হাজার টাকা চাচ্ছে। আমি তাকে নিশ্চিত করলাম পুলিশ এমন কাউকে আটক করেনি।
কিছুক্ষণ পরে তিনি আবার ফোন দিয়ে জানালেন, পুলিশ না, অন্য সংস্থার সাদা পোশাকের কেউ এ কাজ করেছে, পুলিশ খোজ খবর নেয়া শুরু করাতে তড়িঘড়ি করে ১০ হাজার টাকা নিয়ে জজ কোর্টের সামনে নামিয়ে দিয়ে চলে গেছে।
ফোন করা ব্যক্তি সব নিশ্চিত হয়ে আবার ফোন করে ছোট করে সরি বললেন। ততক্ষণে অনেকেই যারা উপরের তারা জানল শুধু পুলিশের কথা।
নিজ সংস্থার পরিচয়টি দিন, কুকাম করার সময়, তাহলে অন্তত আপনি পিতৃহীন কিংবা জারজ পরিচয়ে পরিচিত হবেন না। নিজ সংস্থার পরিচয় সাহস নিয়ে বলুন কুকাম আর ভাল কাম যা ই করেন।
যে কোন অনিয়মে আস্থা নিয়ে কথা বলুন। আমরা আছি আপনার সেবায়।”

এ ব্যাপারে সাতক্ষীরার পুলিশ সুপার মোহম্মদ মোস্তাফিজুর রহমানের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি ফেসবুক পোস্টের সত্যতা নিশ্চিত করেন। তবে এব্যাপারে আর কিছু বলতে রাজি হননি।