শ্যামনগরে ফেন্সিডিলসহ ব্যবসায়ী ও সাজাপ্রাপ্ত আসামী গ্রেপ্তার


প্রকাশিত : অক্টোবর ১৮, ২০১৯ ||

শ্যামনগর (সদর) প্রতিনিধি: শ্যামনগর থানা পুলিশ পেশাদার ফেন্সিডিল ব্যবসায়ী জাহাঙ্গীর আলম টুটুল (৩৯) কে ফেন্সিডিলসহ আটক করেছে। শুক্রবার রাত ৩টার দিকে উত্তর আটুলিয়া বালিকা বিদ্যালয়ের পাশ থেকে পুলিশের সহকারী পরিদর্শক এস আই শেখ নুর কামাল এর নেতৃত্বে পুলিশদল তাকে আটক করে। এসময় তল্লাশী করে তার কাছ থেকে ৪০ বোতল ভারতীয় ফেন্সিডিল জব্দ করে পুলিশ দল। জাহাঙ্গীর উত্তর আটুলিয়া গ্রামে মুনসুর গাজীর ছেলে। এঘটনায় ৪জন কে আসামী করে মাদক আইনে মামলা হয়েছে। মামলা নং- ২২। অন্যান্য আসামীর হচ্ছে- আটুলিয়া ইউনিয়নের বিড়ালক্ষী গ্রামের গফফার মোল্যার পুত্র আবু হাসান, আসাদুল ও জোব্বার গাজী।
শ্যামনগর থানার ওসি নাজমুল হুদা সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, ফেন্সিডিল বিক্রির খবর গোপনে জানতে পেরে পুলিশ দল ঘটনাস্থলে ৪০ বোতল ফেন্সিডিলসহ জাহাঙ্গীর কে আটক করে আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে।
এদিকে শ্যামনগর উপজেলা সদর বাস টার্মিনাল সংলগ্ন সবজী হোটেলের মালিক বাদঘাটা কলোনি পাড়া গ্রামের মৃত বিশে গাজীর ছেলে খোকন গাজী দীর্ঘদিন ধর্মীয় সফরের আড়ালে মোবাইলের মাধ্যমে মাদক ব্যবসা নিয়ন্ত্রণ করছে একটি সূত্রে জানাগেছে। খোকন গাজী এ অঞ্চলের যাবতীয় মাদক ব্যবসা নিয়ন্ত্রণ করে। একাধিকবার মাদক সহ আটক হয়ে আইনের ফাঁক ফোকড়ে বেরিয়ে এসে পুনরায় মাদক ব্যবসায়ে জড়িয়ে পড়ে। মাদক ব্যবসায়ী মুনসুর শেখ বন্দুক যুদ্ধে নিহত হওয়ার পর খোকন গাজী নিজেকে আড়াল করতে ধর্মীয় কাজে বর্তমানে এলাকার বাহিরে অবস্থান করছে জানাযায়। খোকনকে আইনের আওতায় আনার দাবী জানিয়ে এ অঞ্চলের সুশীল সমাজ।
সাজাপ্রাপ্ত আসামী গ্রেপ্তার: দীর্ঘদিন পলাতক সাজাপ্রাপ্ত আসামী আব্দুর রাজ্জাক মিঠুকে গ্রেপ্তার করেছে শ্যামনগর থানা পুলিশ। গতকাল শুক্রবার রাত ১২টার দিকে গোবিন্দপুর বাজার থেকে পুলিশের সহকারী পরিদর্শক মামুন তাকে গ্রেপ্তার করে। আব্দুর রাজ্জাক গোবিন্দপুর গ্রামের মালেক গাজীর ছেলে। শ্যামনগর থানার ওসি নাজমুল হুদা সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, জি, আর ৩৫৬, ৩৫৭ নং মামলায় ১ বছর সশ্রম সাজাপ্রাপ্ত আসামীকে গ্রেপ্তার করে আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে।