আর্কাইভ অক্টোবর ১৯, ২০১৯


শরৎ বিদায়



মুহাম্মদ ইব্রাহিম বাহারী মেঘ নেই আকাশে নীল নীল নীলাভে মেঘগুলো গিলে খায় নীলের ইনভেলাপে। কাশফুল তুলো তুলো নেই আর সেইক্ষণ, ধোয়াটে কুয়াশায় হিম হিম সমিরণ। আকাশটা ফাঁকা ফাঁকা মেঘের ভেলা নেই, মুখ ঢেকে সূর্যের লুকোচুরি খেলা নেই। সুরভিত মশগুল শিউলীর মালা শেষ, পা ভেজে শিশিরে সুখ সুখ অনিমেষ। নদী হারায়...

আমি কার হাতে দেব দেশ



শাবলু শাহাবউদ্দিন আমি কার হাতে দেব দেশ আমার মন্ত্রীরা তো শেষ ; আমি আর কার হাতে দেব দেশ মোদের সংসদেরা তো শেষ ; তোরা কার হাতে দিবি দেশ তোদের রাজনৈতিক নেতার নৈতিকতা শেষ; ওরা কার হাতে দিবে দেশ ওদের ছাত্র নেতা আছে কী চরিত্রটা বেশ ? আপনারা কার হাতে দিছেন...

আমার অনুভবে তোমার কথা হাসু আপা



– শেখ আব্দুল্যাহ আল-মামুন (অ্যাঁঁরি) জন্ম – ২৮শে সেপ্টেম্বর। এভাবে কত দশক যে পার হয়ে গেছে আমার। একাধারে এই ধরে তিন টার্ম আছি ক্ষমতায়। কিন্তু নিজের জন্য নিজে কি চাই? এ সকল কথা ভাবিনি। নিজের জীবনের কথাও ভেবেছি কম, যতোটা ভেবেছি জনগণের কথা। নিজের সন্তানদের জন্য অতোটা করিনি, যতটা করছি...

শেষ ঠিকানা গল্প তৃতীয় পর্ব



এস কে এইচ সৌরভ হালদার চলমান জীবনে মানুষ নানান ধরনের অভিজ্ঞতা অর্জন করে থাকে । এর কোনো টা হয়তো মধুর আবার কোনটা হয়তো বেদনা। কেউ কেউ অতি প্রকৃতি অভিজ্ঞতা দাবি করেন যা হয়ত যুক্তি দিয়ে ব্যাখ্যা করা অসম্ভব নয় । রোমাঞ্চকর অভিজ্ঞতার ক্ষেত্রে ঘটে তবে সামাজিক অভিজ্ঞতা খুব একটা হেরফের...

গোপন কথা



শরীফ সাথী বিকালে তীরধরা দ্বীপের মায়াবী পরিবেশে দাদু ও নাতির মজাদার আড্ডার মাঝে হঠাৎ নাতি বলল, দাদু তুমি আজ বহু পুরোনো রুপ কথার গল্প শোনাও না? বাস্তবতার দিন-কাল ঠেলে। -নাতি ভাই, তাহলে আমি আমার দাদুর কাছে যে গল্প শুনেছিলাম দর্শনা কেরুর কেন্টিনে বসে চা খেতে খেতে সেই গল্পটিই আজ তোকে...

বঙ্গকন্যা তুমি শেখ হাসিনা



গাজী আবদুর রহিম মা, কেমনে ভুলব তোমার নাম? যখন তোমার পিতার নাম শেখ মুজিবুর রহমান। মানবতার দেবী তুমি এই বঙ্গদেশে আঁচল দিয়ে ছায়া দিলে অবশেষে তুমি এসে তুমি না আসলে জননী রূপে আমাদের আঙিনায় মা হারা হয়ে বলো কোন রাক্ষসীর আড়ালে পেতাম ঠাঁই। তোমার নামে খোদার দরবারে সালাম জানাব স্বাধীনতা...

সলিমুলাহ খানের কবিতাবোধন ও ভাষাদর্শন



হিজল জোবায়ের বাইবেলে ঈশ্বর বলেন ‘আমিই আলফা, আমিই ওমেগা’, অর্থাৎ আমিই শুরু, আমিই শেষ। আর যা কিছু এর মধ্যস্থিত, তাও অবধারিত ভাবে আমিই। গ্রীক বর্ণমালার প্রথম আর শেষ বর্ণ এই আলফা, ওমেগা। এভাবেই ভাষার অধিপতিরূপে নিজেকে প্রতীকায়িত করে ঈশ্বর তার অসীমতা আর সর্বশক্তির জানান দিলেন। যা প্রকারান্তরে ভাষারই অসীমতা। ভাষাই...

জোছনা রাতে



শরীফ সাথী জোছনা রাতে পাশের পুষ্প বাগানে এলে তোমাকে সাথে নিয়ে হাতে নিয়ে হাত সাদা সাদা অভ্র মেঘের ভেলার ফাঁকে উঁকি দেওয়া চন্দ্রের জলছবি দেখাবো অতন্দ্র প্রহরী তারাদলের পাহারায় সুশোভিত ঘ্রাণে প্রাণের আবেশে হারাবো।...

দোলনচাঁপার দুঃখ



অঙ্কন রায় দোলনচাঁপা পুরোনো সাইকেলটা বের করে মোটামুটি ভাবে ধুলোটুলো ঝেড়ে ওটায় চেপে মনিমালাকে দেখতে গেল জঙ্গলের ভিতরে। একটা খবর পেয়েই এখন এই মুুহুর্তে যাওয়া মনস্থির করল ও। ওদের বাড়ি থেকে জঙ্গল খুব দূর না হলেও আড়াই পৌনে তিন কিলোমিটারের মতো হবে। আজকাল উচ্চমাধ্যমিকের পরীক্ষার দিন এগিয়ে আসায় বাড়ি থেকে...

আলো



শহীদুর রহমান পথের চিহ্নটা বার বার খুঁজি যে পথে এসেছিল আলো… আলো কি মানুষের সাথে চলে ? নাকি মানুষ চলে আলোর পেছনে ! পলকেই মিলিয়ে য়ায় স্ফুরিত পরশদ্যুতি পরম্পরায় আলোক তরঙ্গাভিঘাতে ঝরা মানবতা- সমুদ্রপ্রাণের তিতিক্ষা দুর্লভ মমত্ব-আর অনুপমেয়তায় নিমগ্ন ভালোবাসা সফলতা নয়-প্রতিষ্ঠা নয় সতাদর্শ গভীর জীবনবোধ-অনাবিল ঔজ্জ্বল্য অপার্থিব সুখের !...

সত্যি না কি অলীক



অরুণ সান্যাল মেয়েটা সুন্দরী বটে;মনে ধরেছে একেই তো দিতে হবে মন মনের মাধুরী ঢেলে। মেয়েটা ভালোবাসে আমাকে; আমিও চিঠি পেলাম ছোঁয়া পেলাম বুক কাঁপলো প্রেমের ঝড়ে, এ সব সত্যি না কি অলীক কল্পনা! মেয়েটা ধনী পরিবারের;মধ্যবিত্ত আমি। চলন্ত ট্রেনের মতো গড়িয়ে গড়িয়ে গেল সময়। তারপর কে কোথায়,ছিন্ন দুজনে। শুধু চোখ...

আমার নিজস্ব কোন বাড়ি নেই



নজরুল ইসলাম দীপ্তি আমার নিজস্ব কোন বাড়ি নেই… আমার বলতে-পালকের এ্যন্টিনায় আদীকালের ঝুলে থাকা একটি স্বরবর্ণের বাড়ি, যে বাড়ির প্রত্েযকটি দেয়াল প্রপশ্যকটি দরজা, জানালা দাঁড়িয়ে থাকে আমার শারীরীক দীর্ঘশ্বাসের উপর, আমি প্রতিশব্দের ঘোড়ায় চড়ে সেই বাড়ি বুকে নিয়ে হাঁটি-আর আমার অন্তরমেঘ সেলাই করা নির্ভরতার ঘুমন্ত দুপুর , আমি এখন এ...

একটা বিকেল চেয়েছি



মামুন সুলতান একটা বৃষ্টিভেজা বিকেল চেয়েছি তোমার কাছে শান্তস্নিগ্ধ খুব শান্তিতে নেমে আসা একটা বিকেল প্রচুর প্রশান্ত মাখা হাওয়ায় ভাসা জলবিকেল বকের শাদা পালকের মতো ওড়া কাশবিকেল। গোলাপ মোড়ানো এই বিকেলে মিষ্টিবাতাসে তোমার কাছে দাঁড়াতে চাই নিস্তব্ধ সবুজ ঘাসে ঝিমিয়ে পড়া বিকেল তোমার কপালে টিপ হয়ে নেমে আসুক আমি স্পর্শ...

চোখ



  চোখ রওশন রুবী চোখে বহুকাল মানুষ চেনার তৃষ্ণা চোখ দুটি রাখি চোখে- গভীর শীতল চোখ দুটি ফিরিয়ে নেই- দ্রোহ বিপব আহ্ মরণ! বহুকাল মানুষ চেনার তৃষ্ণায় ভিজে যাচ্ছে সোহাগের তানপুরা। পথে-প্রান্তরে সকাল বিকেল চোখ খুঁজি শিকারী পৃথিবী সূর্য ছাড়া কিছু বোঝে না চোখ খুঁজি চাঁদের পিঠে, মঙ্গল গ্রহে চোখের...

জোনাকির আলো



আবদুস শুকুর খান এই বসন্ত রাতে চলো দু-দ- বসি কাছে যতটুকু সময় পাবে সঙ্গ দিয়ে। যেও, কানে কানে বলো’সেই কথা, যা বলনি এতদিন, যে কথায় ফুল ফুটে গাছে গাছে, চাঁদ উঠে অর্ন্তমনে, হৃদয়ে জোয়ার আসে, বলো সেই কথা- যা কোটি কোটি বছর ধরে বলেনি কেউ! আর কেউ বলবে না কখনও।...