সাকিব না গেলে অধিনায়ক মুশফিক, মোসাদ্দেক!


প্রকাশিত : অক্টোবর ২৮, ২০১৯ ||

অনলাইন ডেস্ক:   মাঠে চলছে প্রস্তুতি ম্যাচ। বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন তা দেখছেন। সাথে জাতীয় দল পরিচালনা, পরিচর্যার দায়িত্বে থাকা ক্রিকেট অপারেশন্স কমিটি প্রধান আকরাম খান, বোর্ড পরিচালক মাহবুব আনাম, জালাল ইউনুসসহ নীতিনির্ধারণী মহলের আরও কজন আছেন বিসিবি বিগ বসের পাশে।

ওদিকে গ্র্যান্ডস্ট্যান্ড আর প্রেসবক্সে উপস্থিত সাংবাদিকদের উন্মুখ অপেক্ষা, বোর্ডপ্রধান কী বলবেন? সাকিব ভারত সফরে যাবেন নাকি যাবেন না? এ আলোচিত ও আলোড়িত প্রশ্নের উত্তর কি মিলবে আজ?

গোটা দেশ বিশেষ করে ক্রিকেট অনুরাগীরা এ প্রশ্নের জবাব জানতে মুখিয়ে আছেন। আজ সোমবার পড়ন্ত বিকেলে বোর্ডে এসে নাজমুল হাসান পাপন এরই মধ্যে বোর্ড পরিচালক ও কজন সিনিয়র ক্রিকেটারদের সাথে কথা বলেছেন। সেখানে আসলে কি আলোচনা হয়েছে? বোর্ড পরিচালকরা নিশ্চুপ।

তবে কম বেশি সবাই স্বীকার করেছেন, আলোচনা-পর্যালোচনা ও যত কথা সাকিবকে নিয়েই। সাকিব আদৌ ভারত সফরে যাবেন কি যাবেন না, তা নাকি বোর্ড সভাপতি ছাড়া অন্য পরিচালকদের কেউ জানেনও না। কারণ বাকি কারো সাথে সাকিব এ ইস্যুতে কথাও বলেননি।

তবে কজন ক্রিকেটার (মুশফিক, সৌম্য ও মোস্তাফিজসহ আরও কজন) এবং হেড কোচ রাসেল ডোমিঙ্গো আর সবে কাজ শুরু করা স্পিন কোচ ড্যানিয়েল ভেট্টোরিসহ কোচিং স্টাফদের সাথে বিসিবি প্রধানের আলোচনায় নাকি কিছু গুরুত্বপূর্ণ কথাবার্তা হয়েছে।

সাকিব ভারত সফরে গেলে কি হবে, আর না গেলে কীভাবে দল সাজানো হবে এবং টেস্ট ও টি-টোয়েন্টি ফরম্যাটে ভারতের বিপক্ষে অধিনায়কত্ব করবেন কে, নাকি একাধিক কাউকে দুই ফরম্যাটের দায়িত্ব দেয়া হবে- এসব নিয়েই নাকি কথা হয়েছে।

বোর্ড পরিচালকদের কেউ একটি কথা না বললেও ভেতরের খবর, সাকিব না গেলে কীভাবে পরিস্থিতি মোকাবিলা করা যায় বা যাবে, তা নিয়েই কথা হয়েছে। সম্ভাব্য বিকল্প অধিনায়ক নিয়েও আলোচনা হয়েছে।

একটি দায়িত্বশীল সূত্রে জানা গেছে, সাকিবের বিকল্প টেস্ট অধিনায়ক হিসেবে মাহমুদউল্লাহ রিয়াদের পাশাপাশি এবার মুশফিকুর রহীমের নামও উচ্চারিত হয়েছে। সাকিব না গেলে দুই ভায়রার যে কোনো একজন হয়তো নেতৃত্ব দেবেন।

টি-টোয়েন্টি অধিনায়ক পদে থাকছে বড়সড় চমক! সাকিব দল পরিচালনায় না থাকলে মোসাদ্দেক হোসেন সৈকতের কথাই ভাবা হচ্ছে। সাকিব শেষ পর্যন্ত না গেলে খুব সম্ভবত মোসাদ্দেকই হতে যাচ্ছেন টি-টোয়েন্টি অধিনায়ক।