কালিগঞ্জে জমিজমা সংক্রান্ত বিরোধকে কেন্দ্র করে বসতবাড়িতে হামলা ভাংচুর ও লুটপাট, আহত ৪


প্রকাশিত : নভেম্বর ২, ২০১৯ ||

বিশেষ প্রতিনিধি: কালিগঞ্জে জমিজমা সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে একটি বাড়িতে হামলা, ভাংচুর ও লুটপাট চালানো হয়েছে। ঘটনাটি ঘটেছে শুক্রবার বিকেলে উপজেলার মথুরেশপুর ইউনিয়নের গণপতি গ্রামের মৃত শেখ আব্দুস সোবহানের ছেলে সাইফুল ইসলামের বাড়িতে। এব্যাপারে ভুক্তভোগী সাইফুল ইসলাম কালিগঞ্জ থানায় লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন।
অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, উপজেলার মথুরেশপুর ইউনিয়নের মৃত আক্তার আলীর ছেলে শেখ আব্দুল আজিজ ওরফে টেটো মিস্ত্রীর সাথে ওই গ্রামের সাইফুল ইসলামের দীর্ঘদিন জমিজমা নিয়ে বিরোধ চলছে। এর জের ধরে গত ১ নভেম্বর বিকেল ৩টার দিকে টেটো মিস্ত্রী বহিরাগত লাঠিয়াল বাহিনী ভাড়া করে সাইফুল ইসলামের দখলীয় সম্পত্তি জবর দখলের উদ্দ্যেশে বাড়িতে প্রবেশ করে বসতঘর ভাঙচুর শুরু করে। এসময় সাইফুল ইসলাম বাঁধা দিলে টেটো মিস্ত্রী গং তাকে এলোপাতাড়ি মারপিট করে। এক পর্যায়ে সাইফুল ইসলামের স্ত্রী ঠেকাতে গেলে টেটো মিস্ত্রী গং তাকে ধারালো দা দিয়ে তার মাথায় কোপ মারে এবং শ্লীলতাহানি করে।
সাইফুল ইসলামের বাড়ির অন্য সদস্যদের চিৎকারে তার ভগ্নিপতি এশার আলী গাজী ও প্রতিবেশি আমেনা খাতুন এগিয়ে আসলে টেটো মিস্ত্রী গং তাদেরকেও মারধর করতে থাকে। একপর্যায়ে এশার আলী গাজীর হাতের আঙ্গুল ও আমেনা খাতুনের নাকের হাড় ভেঙ্গে যায়।
এসময় হামলাকারীরা বসতঘরের আসবাবপত্র ভাংচুরের পাশাপাশি নগদ টাকা ও স্বর্ণের চেইন হাতিয়ে নেয়। হামলাকারীরা চলে গেলে প্রতিবেশীরা আহতদের দ্রুত উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে। এঘটনায় সাইফুল ইসলাম ১১ জনের নাম উল্লেখসহ অজ্ঞাতনামা ৮/১০ জনের বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ দিয়েছেন।
পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) এসএম আজিজুর রহমান জানান, লিখিত অভিযোগ পেয়েছি। তদন্তপূর্বক আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।