১৫ বছর বয়সী গায়িকাকে যৌনতার প্রস্তাব অনু মালিকের


প্রকাশিত : নভেম্বর ৬, ২০১৯ ||
অনলাইন ডেস্ক:  সংগীত পরিচালক অনু মালিকের বিরুদ্ধে অনেক গায়িকাই এর আগে যৌন হেনস্তার অভিযোগ করেছেন। এবার সেই তালিকায় যোগ হলেন গায়িকা শ্বেতা পণ্ডিত। তিনিও অনু মালিকের নোংরা হাতের ছোঁয়া থেকে পার পাননি বলে অভিযোগ করেছেন। বলিউডে #MeToo আন্দোলন শুরু হওয়ার পর খানিকটা মনে শান্তি পেয়েছেন বলে জানিয়েছেন তিনি। কারণ, এর আগে কখনই বলিউডের মিউজিক কম্পোজার অনু মালিকের বিরুদ্ধে মুখ খুলতে পারেননি তিনি। কয়েকদিন আগেই অনু মালিকের বিরুদ্ধে মুখ খুলেছেন গায়িকা নেহা ভাসিন। এর পর শ্বেতার প্রসঙ্গ টেনে এনে ফের একবার অনু মালিককে এক হাত নিয়েছেন নেহা। তার পরিপ্রেক্ষিতে শ্বেতা টুইট করে লিখেছেন, ২০১৯-এও আমরা নিগৃহীতাকে প্রশ্ন করি।দুই দশক ধরে এই ইন্ডাস্ট্রিতে গায়িকা হওয়া সত্ত্বেও এত নোংরা মানসিকতার লোক দেখতে হয়। ২০০১ সালে যখন আমার সঙ্গে অনাকাঙ্খিত ঘটনা ঘটে তখন আমি একজন স্কুলের ছাত্রী। শ্বেতার বয়স তখন মাত্র ১৫। তখনই অনু মালিক তার শরীরে হাত দিয়েছিলেন। বিছানায় যাওয়ার প্রস্তাবও করেন তিনি। কিন্তু কোনমতে তখন নিজেকে বাঁচিয়ে বের হয়ে আসেন শ্বেতা। এ গায়িকা বলেন, সিনিয়ররা সব সময় সম্মানের পাত্র। কিন্তু এমন আচরণ তাদের সম্মানের জায়গা থেকে নামিয়ে দেয়। আমি তখন কিছু বলতে পারিনি। মিটু ক্যাম্পেইনের মাধ্যমে এখন অনেকেই সরব হচ্ছেন যৌন হেনস্তার বিরুদ্ধে। তাই অনু মালিকের মুখোশও উন্মোচিত হওয়া দরকার।