তালায় খুলনা কৃষি গবেষণা ইনস্টিটিউটের উদ্যোগে বজ্র নিরোধক তাল বীজ বপন


প্রকাশিত : নভেম্বর ৭, ২০১৯ ||

পত্রদূত রিপোর্ট: ৭ নভেম্বর বিকালে গোপালগঞ্জ জেলায় বিএআরআই এর কৃষি গবেষণা কেন্দ্র স্থাপন ও দেশের দক্ষিণ-পশ্চিম অঞ্চলের পরিবেশ-প্রতিবেশ উপযোগী গবেষণা কার্যক্রম জোরদারকরণের মাধ্যমে কৃষি উন্নয়ন প্রকল্পের আওতায় বাংলাদেশ কৃষি গবেষণা ইনস্টিটিউট সরেজমিন গবেষণা বিভাগ, খুলনার আয়োজনে জেলার তালা উপজেলার বিনেরপোতা-হরিণখোলা মাঠে রাস্তার দু’পাশে প্রধানমন্ত্রীর ঘোষণা অনুযায়ী ৫০০ তাল বীজ বপন করা হয়। তাল বীজ বপন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন সরেজমিন গবেষণা বিভাগ, খুলনার প্রধান বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা ড. মো. হারুনর রশিদ, সভাপতি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বিনেরপোতা কৃষি গবেষণা কেন্দ্রের ভারপ্রাপ্ত প্রধান বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা ড. মো. মোশাররফ হোসেন। অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সরেজমিন গবেষনা বিভাগ খুলনার উর্দ্ধতন বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা ড. মো. মহসীন হাওলাদার, বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা মো. মোস্তফা কামাল শাহাদাৎ, বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা মো. ওলি আহম্মেদ ফকির, বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা মো. মাশফিকুর রহমান, বৈজ্ঞানিক সহকারী অমরেশ চন্দ্র সরকার, মো. মশিউর রহমান, মো. মতিয়ার রহমান, মো. আব্দুস সামাদ, মো. রফিকুল ইসলাম। বীজ বপন অনুষ্ঠানে আরও ৫০জন কৃষক-কৃষাণী উপস্থিত ছিলেন।

প্রধান অতিথি বলেন, ‘আমাদের দেশে বর্তমানে বজ্রপাতে অনেক লোক মারা যাচ্ছে, তাই গোপালগঞ্জ প্রকল্পের আওতায় আমরা সাতক্ষীরা, খুলনা, বাগেরহাটা জেলার প্রতিটি উপজেলায় ৫ কিলোমিটার করে রাস্তার দু’পাশে বজ্র নিরোধক তালের বীজ বপন করব, যার ধারাবাহিকতায় গত ০১.০১.২০১৯ তারিখে সাতক্ষীরা সদরের ভোমরা ইউনিয়ন পরিষদের সংশ্লিষ্ট চেয়ারম্যানের সহায়তায় উত্তর হাড়দ্দহা গ্রামে রাস্তার দু’পাশে ইতোমধ্যে ৫০০ তাল বীজ বপন করা হয়েছে। তাছাড়াও উক্ত প্রকল্পের আওতায় সকল উপজেলায় বাংলাদেশ কৃষি গবেষণা ইনস্টিটিউট কর্তৃক উদ্ভাবিত বিভিন্ন ফসলের জাতের উপযোগিতা যাচাই এর লক্ষে গবেষণা কার্যক্রম পরিচালনা করে আসছে। প্রসঙ্গত: গোপালগঞ্জ প্রকল্পটি জুলাই ২০১৮ সালে শুরু হয়েছে এবং জুন ২০২৩ পর্যন্ত বাস্তবায়ন করা হবে।