হলুদ পাতার দীর্ঘশ্বাস


প্রকাশিত : নভেম্বর ৮, ২০১৯ ||

চাষা হাবিব
নীলঘন্ট বেনিতে তোমার ঘুমকালো অন্ধকার
সে অন্ধকারে বেড়ে ওঠে কালো কইতর
বাড়ে তর তর করে ঘৃতকুমারীর মেঘ
যে মেঘে ঘর পোঁড়ে বুকের ভিতর।

তোমার ঐ প্রগাঢ় কালো গালিচায় আমি হারিয়ে যেতে চাই
হারিয়ে যেতে দাও আমাকে তুমি তোমার সর্বনাশা সবুজে
পোড়াতে দাও আমার যৌবন
আমি তোমার অমৃত নির্যাসে
তোমার অতল গহবরে খোঁয়াতে চাই আমার জৌলুশ
যা জমিয়েছি আমি হাড়ের ভিতরে-পাপের আগুনে
কত রাত কত বিকেল একরত্তি না দাঁড়িয়ে।
তোমার নগ্ন ভূমিতে আমিও চাষতে চাই
আমার বুকের উষ্ণতায় নগ্ন কাজু বাদাম
তোমার চুলের ঘ্রাণে আমি মিশে যেতে চাই বাধভাঙ্গা উচ্ছাসে
যদিও বুকের মধ্যে হলুদ পাতার দীর্ঘশ্বাসে
সাদা হয়ে আসে মাথার চুল
দাঁড়ি গোঁফে ঘন হয় জঙ্গল।
বাতাসে ভেসে বেড়ায় সরষের তাজা ফুল
আর আমি বসে বসে না মেপে সূতা কাটি
দেহের ভাঁজে জমে উচু হয় পুরনো নুন
এক মুঠো রোদ এসে সে অন্ধকারে বাসা বাধে
গিলে খায় অন্ধ যৌবন যেন শুধুই অন্ধকার
আর কালো কইতর তার নাঁটাইয়ে উড়ায়
বিষমাখা অন্ধ প্রেম জ্বালিয়ে সমনের কসম।