কথিত প্রভাবশালী রাজনীতিকের ছত্রছায়ায় থাকা দুই চাঁদাবাজ সাংবাদিক গ্রেপ্তার, পালালো আরো ২ জন (ভিডিও)


প্রকাশিত : November 12, 2019 ||

অনলাইন ডেস্ক: শহরের ইটাগাছায় অবস্থিত আব্দুল খালেকের মালিকানাধীন শাহিনুর বেকারীতে সাংবাদিক পরিচয় দিয়ে চাঁদাবাজির সময় দুইজনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। আজ মঙ্গলবার বেলা ১২টার দিকে তাদেরকে গ্রেপ্তার করা হয়। গ্রেপ্তারকৃত দুই যুবকের নাম মামুন হোসেন মিলন ও মাজহারুল ইসলাম। মামুন হোসেন মিলন শহরের মুন্সিপাড়া এলাকার আব্দুল জলিলের ছেলে এবং মাজহারুল ইসলাম বাকাল এলাকার আব্দুল আজিজের ছেলে। এসময় আব্দুল হাকিম ও পলাশ নামে আরো দুইজন পালিয়ে যায়।
বেকারী মালিক আব্দুল খালেক জানান, ১১ নভেম্বর সোমবার বেলা ১২টার দিকে ৪ জনের একটি টিম নিজেদের সাংবাদিক পরিচয় দিয়ে শাহিনুর বেকারীতে প্রবেশ করে। তারা উক্ত বেকারীতে অপরিচ্ছন্ন পরিবেশের অভিযোগে ২০ হাজার টাকা চাঁদা দাবী করে। অন্যথায় ভ্রাম্যমান আদালতের মাধ্যমে জেল জরিমানার ভয় দেখায়। খালেক জানায়, তিনি তাৎখনিক ঘরে থাকা ২ হাজার টাকা দিয়ে অবশিষ্ঠ টাকার জন্য ১দিন সময় চান। এসময় ঐ কথিত সাংবাদিক বাহিনীর সদস্যরা চলে যায়।
এদিকে আজ বেলা ১১টার দিকে উক্ত কথিত সাংবাদিক বাহিনী পুনরায় শাহিনুর বেকারীতে গেলে জনৈক ব্যক্তি বিষয়টি মোবাইল ফোনে সাতক্ষীরার পুলিশ সুপার মোহম্মদ মোস্তাফিজুর রহমানকে জানান। এরপরপরই সাতক্ষীরা গোয়েন্দা পুলিশ ও সদর থানার পুলিশ উক্ত বেকারীতে অভিযান চালায়। এসময় মামুন হোসেন মিলন ও মাজহারুল ইসলামকে হাতে নাতে আটক করতে সক্ষম হয়। তারা চাদাবাজীর কথা স্বীকার করে এবং নিজেদেরকে সাতক্ষীরা শহর থেকে প্রকাশিত দুটি পত্রিকার সাংবাদিক হিসেবে পরিচয় দেয়। এছাড়া আব্দুল হাকিম ও পলাশ নামে আরো দুই জন পালিয়ে যেতে সক্ষম হয়।
আটককৃত দুইজনসহ পালাতকরা সাতক্ষীরার একজন কথিত প্রভাবশালী রাজনৈতিক নেতার ছত্রছায়ায় থেকে দীর্ঘদিন ধরে সাধারণ মানুষকে ভয়ভীতি দেখিয়ে চাঁদাবাজী করে আসছে বলে জানা গেছে।
এব্যাপারে সাতক্ষীরা সদর থানায় যোগাযোগ করা হলে পুলিশ গ্রেপ্তারের বিষয়টি স্বীকার করে জানায় মামলা প্রক্রিয়াধীন, পরে বিস্তারিত জানতে পারবেন। বিস্তারিত আসছে——–