আদালতের সকল কর্মকর্তা-কর্মচারীকে গরীব বান্ধব হতে হবে: জেলা ও দায়রা জজ শেখ মফিজুর রহমান (ভিডিও)


প্রকাশিত : December 2, 2019 ||

বদিউজ্জামান: লিগ্যাল এইড কমিটির চেয়ারম্যান এবং জেলা ও দায়রা জজ শেখ মফিজুর রহমান বলেছেন, আদালতের সকল কর্মকর্তা-কর্মচারীকে গরীব বান্ধব হতে হবে। তিনি সভায় উপস্থিত শতাধীক কোর্ট স্টাফের উদ্দেশ্যে বলেন, বিচারপ্রর্থী গরীব মানুষ যারা আপনাদের কাছে আসে, তাদের দিকে সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দিবেন, যারা গরীব, তারা অনেক বাধা-বিপত্তি পেরিয়ে একটু ন্যায় বিচার পাওয়ার আশায় আমাদের কাছে আসে-তারা যেন কোন অবস্থতেই বঞ্চিব না হয়। তিনি উপস্থিত সকলের উদ্দেশ্যে আরও বলেন, কোর্ট অঙ্গনের সকল প্রকার দূর্নীতিকে না বলুন এবং কোন প্রকার দূর্নীতিকে কোন অবস্থাতেই প্রশ্রয় দেওয়া হবেনা, অভিযোগ পেলেই ব্যবস্থা নিতে কিন্তু বিন্দুমাত্র দেরি হবেনা।
তিনি সোমবার বিকাল ৪ টায় জজশীপের সম্মেলন কক্ষে অনুষ্ঠিত জেলা ও মাঠ পর্যয়ে আইনগত সহায়তা প্রদান কর্মসূচীর অগ্রগতি বিষয়ক সমম্বয় সভায় সভাপতির বক্তব্যে এসব কথা বলেন। জেলা লিগ্যাল এইড কমিটি, সাতক্ষীরার আয়োজনে এবং আদালতের কর্মকর্তা-কর্মচারীবৃন্দের অংশগ্রহণে ও উইমেন জব ক্রিয়েশন সেন্টারের সহযোগিতায় ওই সভা অনুষ্ঠিত হয়।
সভায় বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, চীফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মোস্তফা পাভেল রায়হান ও অতিরিক্ত চীফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট হুমায়ন কবীর। এছাড়া বক্তব্য রাখেন, যুগ্ম জেলা ও দায়রা জজ ফারুক ইকবাল, সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট রেজওয়ানুজ্জামান রাজা, জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট ইয়াসমিন নাহার, জজ আদালতের প্রশাসনিক কর্মকর্তা আবু সুফিয়ান, চীফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের প্রশাসনিক কর্মকর্তা মোঃ মতিয়ার রহমান, নাজির ইসমাইল হোসেন, সেরেস্তাদার রফিকুল ইসলাম, প্রধান তুলনাকারি পরস মনি হোসনা, অফিস সহকারি আব্দুল মুকিত, জারিকারক ফিরোজ আহমেদ ও মমতাজ বেগম প্রমূখ।
সভায় জজশীপ ও ম্যাজিস্ট্রেসির সকল বিচারকবৃন্দ এবং শতাধীক স্টাফের উপস্থিতিতে জেলা ও দায়রা জজ শেখ মফিজুর রহমান আরও বলেন, আমরা যদি সকল প্রকার ভালো কাজে সহযোগিতা করতে পারি তবেই বাংলাদেশকে ইউরোপ, আমেরিকা ও অস্ট্রেলিয়ার মতো ওয়েল ফেয়ার ষ্টেটে পরিণত করতে পারবো। একটা দেশকে উন্নয়নশীল রাষ্ট্রে পরিণত করতে হলে যেটা সব থেকে বড় শর্ত সেটা হচ্ছে, দেশে সু-শাসন সৃস্টি করা বা বিচারে প্রবেশাধিকার সৃস্টি করা, বিচারে প্রবেশাধিকার যদি আমরা ঘটাতে পারি-তবেই সকল মানুষ ন্যায় বিচার পাবে, সকল মানুষ সু-বিচার পাবে। তিনি ভারতের সাবেক প্রধান বিচারপতি পি আর ভগবাৎ এর উদ্ধৃতি দিয়ে বলেন, তিনি (ভারতের সাবেক প্রধান বিচারপতি) বলেছিলেন- গরীব মানুষ কেন পিছিয়ে পড়ে, গরীব মানুষ পিছিয়ে পড়ার কারণ কী। ৩টি কারণ তিনি নিদ্ধারণ করেছিলেন, যার একটি হচ্ছে- গরীব মানুষ আর্থিকভাবে অসহায়, দ্বিতীয়টি হচ্ছে- গরীব মানুষ সোচ্চার না এবং তৃতীয়টি হচ্ছে- গরীব মানুষের অজ্ঞতা আছে, কারণ সে জানেনা কোথায় তার অধিকার। জেলা ও দায়রা জজ উপস্থিত সকলের উদ্দেশ্যে বলেন, এই ৩টি জিনিস গরীব মানুষের থাকেনা, সে কারনেই যারা গরীব মানুষ আপনাদের কাছে আসে, তাদেরকে আপনারা সোচ্চার করবেন, সচেতন করবেন, তারা যেন তাদের অধিকার আদায় করে নিতে পারে।
সমগ্র অনুষ্ঠানটি পরিচালনা করেন, জেলা লিগ্যাল এইড অফিসার ও সিনিয়র সহকারী জজ সালমা আক্তার।