পিএন স্কুলে নিয়োগে অনিয়মের অভিযোগ


প্রকাশিত : December 2, 2019 ||

পত্রদূত রিপোর্ট: জেলার প্রাচীনতম ঐতিহ্যবাহী শিক্ষা প্রতিষ্ঠান পিএন স্কুল এন্ড কলেজে অনিয়ম ও স্বজনপ্রীতির মাধ্যমে সহকারি প্রধান শিক্ষক পদে একজনকে নিয়োগের ব্যবস্থা করা হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে।
পিএন স্কুলে দীর্ঘদিন যাবৎ প্রধান শিক্ষক ও সহকারী প্রধান শিক্ষক পদ খালি রয়েছে। অথচ শুধুমাত্র সহকারি প্রধান শিক্ষক পদে জনৈক মেহেদী হাসান নামে একজনকে নিয়োগের অনৈতিক পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে স্কুলে ম্যানেজিং কমিটি। ইতোমধ্যে মেহেদী হাসানের চতুর্থ স্ত্রী শিরিন আকতারকে সহকারি লাইব্রেরীয়ান পদে নিয়োগ দেওয়া হয়েছে। এখন মেহেদী হাসানের প্রয়োজনীয় যোগ্যতা না থাকা সত্বেও নিয়োগদানের ব্যবস্থা করা হচ্ছে বলে নির্ভরযোগ্য সূত্রে জানা গেছে। উক্ত মেহেদী হাসান গত এসএসসি পরীক্ষা কেন্দ্রে দায়িত্ব পালনকালে ছাত্রদের নকল সাপ্লাই দিতে গিয়ে হাতে নাতে ধরা পড়ায় তাকে কেন্দ্র হতে বহিস্কার করা হয়েছিল। তা সত্বেও শুধুমাত্র ম্যানেজিং কমিটির বাড়িঘর দেখভাল করেন এ সুবাদে মেহেদী হাসানকে সহকারি প্রধান শিক্ষক পদে চাকরি দেয়া হবে বলে স্কুলের সর্বমহলে প্রচার হওয়ার বিষয়টি জেলা প্রশাসক ও জেলা শিক্ষা অফিসারের দৃষ্টি আকর্ষণ করে হস্তক্ষেপ কামনা করা হয়েছে।