যবিপ্রবি কর্মকর্তা সমিতির নেতৃত্বে হেলাল উদ্দিন ও কামরুল হাসান

জহুরুল ইসলাম,যবিপ্রবি:  যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (যবিপ্রবি) কর্মকর্তা সমিতির নির্বাচনে সভাপতি পদে নির্বাচিত হয়েছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রধান প্রকৌশলী মোঃ হেলাল উদ্দিন পাটোয়ারী এবং সর্বোচ্চ সংখ্যক ভোট পেয়ে সাধারণ সম্পাদক পদে নির্বাচিত হয়েছেন সেকশন অফিসার এ টি এম কামরুল হাসান। আগামী দুই বছর তাঁরা এই পদে দায়িত্ব পালন করবেন।ভোট গণনা শেষে আজ সোমবার বিকেলে এই ফলাফল ঘোষণা করেন কর্মকর্তা সমিতির নির্বাচন উপলক্ষে গঠিত নির্বাচন কমিশনের প্রধান নির্বাচন কমিশনার ও পরিচালক (হিসাব) মোঃ জাকির হোসেন। বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসনিক ভবনের সম্মেলন কক্ষে সকাল সাড়ে ৯টা থেকে বেলা দেড়টা পর্যন্ত ভোট গ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়। ৮৭ জন ভোটারের মধ্যে ৮৬ জন ভোটারই তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করেন। তবে কয়েকটি ভোট ত্রুটিপূর্ণ হওয়ায় তা বাতিল করা হয়।

ঘোষিত ফলাফলে দেখা যায়, সভাপতি পদে প্রধান প্রকৌশলী মোঃ হেলাল উদ্দিন পাটোয়ারী ৫৩ ভোট পেয়ে বিজয়ী হন। তাঁর নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী উপ-গ্রন্থাগারিক স্বপন কুমার বিশ্বাস পেয়েছেন ২৬ ভোট। সহ-সভাপতি পদে ৪৫ ভোট পেয়ে বিজয়ী হন উপ-পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক মোঃ নজরুল ইসলাম। তাঁর নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী সহকারী পরিচালক (জনসংযোগ) মোঃ হায়াতুজ্জামান পান ২৬ ভোট। সাধারণ সম্পাদক পদে এ টি এম কামরুল হাসান ৫৪ ভোট পেয়ে বিজয়ী হন। তাঁর নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী মোঃ হেলালুল ইসলাম পেয়েছেন ২৬ ভোট। সহ-সাধারণ সম্পাদক পদে ৩৪ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন মোঃ শাহেদ রেজা। তাঁর নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী এস এম হাসান আলী পেয়েছেন ২৬ ভোট। সাংগঠনিক সম্পাদক পদে ৫১ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন মোঃ শরিফুল ইসলাম। তাঁর নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী মু. মুন্সী মনিরুজ্জামান পেয়েছেন ৩১ ভোট। ক্রীড়া, সাংস্কৃতিক ও সমাজকল্যাণ সম্পাদক ৪৫ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন মোঃ আব্দুর রাজ্জাক। তাঁর নিকটকম প্রতিদ্বন্দ্বী মোঃ কবির হোসাইন পেয়েছেন ৩৫ ভোট। দপ্তর ও প্রচার সম্পাদক পদে ৪৭ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন মোঃ কাজী শাহিনুর রহমান। তাঁর নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী মোঃ শাহীন হোসেন পেয়েছেন ৩৩ ভোট। অর্থ সম্পাদক পদে ৪৬ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন পার্থ সারথী দাস। তাঁর নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী হাবিবুর রহমান পেয়েছেন ৩৫ ভোট। এ ছাড়া বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাহী কমিটির সদস্য নির্বাচিত হয়েছেন প্রধান চিকিৎসা কর্মকর্তা ডা. দীপক কুমার মন্ডল, উপ-রেজিস্ট্রার মোহাম্মাদ এমদাদুল হক ও নির্বাহী প্রকৌশলী মোঃ নাজমুস সাকিব।

ফলাফল ঘোষণা শেষে নবনির্বাচিত কমিটি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. মোঃ আনোয়ার হোসেনকে ফুল দিয়ে শুভেচ্ছা জানান। এ সময় নবনির্বাচিত কমিটির সদস্যদের অভিনন্দন জানিয়ে তিনি বলেন, এ বিশ্ববিদ্যালয়ের উপর দিয়ে অনেক ঝড়-ঝঞ্চা এসেছে, তা আমরা পাশপাশি থেকে ঐক্যবদ্ধভাবে মোকাবিলা করেছি। আশা করি, বিশ্ববিদ্যালয়ের অগ্রযাত্রায় আগামীতেও আপনাদের প্রত্যক্ষ-পরোক্ষ সহযোগিতা পাব।

ঘূর্ণিঝড় বুলবুল: যোগাযোগ ব্যবস্থা বিদ্যুৎ সঞ্চালন স্বাভাবিক হয়নি

এমএ রহিম: ভয়াবহ বুলবুলের আঘাতে দেশের দক্ষিণ পশ্চিমাঞ্চলের সাতক্ষীরা শ্যামনগর, পদ্মপুুকুর, কৈখালি, গাবুরা, বুড়িগোয়ালিনি, কাশিমাড়ী, নুরনগর, রমজাননগর মুন্সিগঞ্জসহ বিভিন্ন এলাকায় ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। পানিতে তলিয়ে গেছে হাজার হাজার একর চিংড়ি ঘের। সড়কের দুপাশের গাছ উপড়ে ভেঙে পড়েছে। ভেঙে পড়েছে বিদ্যুৎ ব্যবস্থা। নিশ্চিহ্ন হয়েছে আয়লায় ক্ষতিগ্রস্ত সবুজ বনায়ন প্রকল্পের সবুজ বেষ্টনীর গাছ। সড়ক যোগাযোগ অনেকাংশে রয়েছে বন্ধ। শ্যামনগরের সাথে সড়ক যোগাযোগ এখনও পুরোপুরি স্বাভাবিক হয়নি। ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে হাজারও ঘরবাড়ি। ফসলের ক্ষেতে তলিয়ে গেছে। প্রশাসনের সদস্যরা ও স্থানীয় জন প্রতিনিধিরা উদ্ধার ও ত্রাণ সহযোগিতা চালিয়ে যাচ্ছে। বিকালে বিভিন্ন এলাকায় ত্রাণ দিয়েছেন সাতক্ষীরা জেলা প্রশাসন। এসময় সেনা, র‌্যাব, পুলিশসহ বিভিন্ন বাহিনীর সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।

অনেকের বাসাবাড়িতে পড়েছে সড়কের গাছ। ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে আসবাবপত্র। মাথা গোজার ঠাঁই নষ্ট হয়ে গেছে। ঘরবাড়ি হারিয়ে অনেকে আশ্রয় নেন শেল্টার হোমসহ বিভিন্ন সরকারি ভবনে। রবিবার সকালে অনেকে ফিরে বাড়িতে। মাথা গোজার ঠাঁইটুকু বিলীন হয়ে গেছে তাদের। সরকারের পুনর্বাসনের আশ্বাস তাদের আশা জোগাচ্ছে।

তবে ঢাকা সাতক্ষীরা মুন্সিগঞ্জ ভায়া শ্যামনগরের মধ্যে যোগাযোগ ব্যবস্থা স্বাভাবিক করতে কাজ চালিয়ে যাচ্ছে ফায়ার সার্ভিস কর্মিরা। পুরো এলাকা অন্ধাকারে পরিণত হয়েছে।

শ্যামনগর উপজেলায় প্রধানমন্ত্রীর ত্রাণ তহবিল থেকে ৪৩২ প্যাকেট শুকনা খাদ্য, ৯২ টন চাল বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে। ঢেউটিনেসহ বিভিন্ন উপকরণ এলাকায় পৌছেছে বলে জানান উপজেলা প্রকল্প পরিচালক শানিনুল ইসলাম।

সাড়ে তিনহাজার কাচাঘর, অসংখ্য গাছ ঘের বিদ্যুৎ লাইন বিধ্বস্ত হয়েছে। বিপর্যস্ত এলাকার মানুষ। তবে অনেকে দুুপুর থেকে এলাকায় ফিরতে শুরু করেছে। সহযোগিতা অব্যাহত রাখার দাবী জানান-শ্যামনগর বুড়িগোয়ালিনি ইউপি চেয়ারম্যান ভবতোষ কুমার মন্ডল। তিনি সব এলাকার মানুষের সুখ দুখে পাশে আছেন বলে জানান। সাতক্ষীরা এলাকায় এখনও ঝড়ের বেগ ও মেঘলা আকাশ রয়েছে। তবে বৃষ্টি কমে গেছে।

শার্শায় প্রান্তীক পর্যায়ের ১৫২০ জন কৃষকের মধ্যে বীজ সার বিতরণ

বেনাপোল (যশোর) প্রতিনিধি: কৃষি প্রণোদনার আওতায় যশোরের শার্শা উপজেলায় প্রান্তিক পর্যায়ের ১৫২০জন কৃষকের মধ্যে বিনামূল্যে বীজ ও সার বিতরণ করা হয়েছে। সোমবার সকালে শার্শা উপজেলা কৃষি অফিসের কনফারেন্সরুমে এক আনুষ্ঠানিকতার মাধ্যমে সার বীজ বিতরণ অনুষ্ঠানের উদ্বোধন করেন সংসদ সদস্য শেখ আফিল উদ্দিন। ৬৭৫ জন কৃষককে সরিষা বীজ, ৬৮৫ জনকে ও ভুট্টা বীজসহ চাষীদের মধ্যে ২০ কেজি ডেফ্র  ও ১ কেজি করে নেফ সার বিতরণ করা হয়।

উপজেলা চেয়ারম্যান সিরাজুল হক মঞ্জুর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত বীজ ও সার বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন এমপি শেখ আফিল উদ্দিন, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান মেহেদী হাসান, আলেয়া ফেরদেীস, কৃষি কর্মকর্তা সৌতম কুমার শীল।

বেনাপোলে সবজির বাজার চড়া-ক্ষতিগ্রস্ত আমন ও সবজি ক্ষেত 

বেনাপোল (যশোর) প্রতিনিধি: বুলবুলের প্রভাব ও নি¤œচাপের কারণে স্থলবন্দর বেনাপোলসহ স্থানীয় বাজারগুলোতে সবজির দাম অনেকাংশে বেড়ে গেছে। প্রতি কেজিতে বেড়েছে ২০ থেকে ২৫ টাকা। কপি, কলা সিম বরবটি উচ্ছে প্রতিকেজি বিক্রি হচ্ছে ৬০ থেকে ৭০ টাকা। উপজেলায় অনেক সবজি ক্ষেত হয়েছে ক্ষতিগ্রস্ত। নষ্ট হয়েছে পাকা আমন ধান ক্ষেত। ক্ষতিগ্রস্ত  হয়েছেন কৃষকেরা

গত তিন দিনের ব্যাবধানে বুলবুলের কারণে বাজারে সব ধরনের সবজি সরবরাহ কমে যাওয়ায় দাম গেছে বেড়ে। বিপাকে পড়েছেন ক্রেতারা

বিক্রেতারা বলেন, সবজি ক্ষেত নষ্টসহ আমদানি কমে যাওয়ায় দাম বেড়েছে। শীতকালিন সবজির দাম চড়া।

চাষীরা বলেন, বুলবুলের কারনে ঝড় ও বৃষ্টিতে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে মাঠের পর মাঠ সবজি ও পাকা আমন ধান ক্ষেত ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছেন। সরকারের সহযোগিতা কামনা করেছেন চাষীরা।

উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা সৌতম কুমার শীল বলেন, বৃষ্টিতে ক্ষতিগ্রস্ত সবজি ও ধানক্ষেতে পানি নিষ্কাশন সহ ঔষধ স্প্রে করার পরামর্শ দিচ্ছেন কৃষি বিভাগ। কৃষকদের সব ধরনের সহযোগিতার আশ্বাস দেন তিনি। শার্শায় ২০০ একর জমির পাকা আমন ধানক্ষেত নষ্ট হয়েছে। সবজি নষ্টের পরিমান জানতে কাজ করছে কৃষি বিভাগ।

আনুষ্ঠানিকভাবে বঙ্গবন্ধু ছাত্রপরিষদ যবিপ্রবি শাখার কার্যক্রম  শুরু

জহুরুল ইসলাম,যবিপ্রবি:  যশোর শহরস্থ  বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান’র প্রতিকৃতিতে পুষ্পাঞ্জলি অর্পণ করে শ্রদ্ধা নিবেদনের মাধ্যমে আনুষ্ঠানিক ভাবে কার্যক্রম শুরু করেছে যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় বঙ্গবন্ধু ছাত্র পরিষদ।
সম্প্রতি গঠিত হওয়া বঙ্গবন্ধু ছাত্র পরিষদ যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় শাখা কর্তৃক আয়োজিত প্রথম কর্মসূচি এটি।
বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ করার সময় উপস্থিত ছিলেন বঙ্গবন্ধু ছাত্র পরিষদ যবিপ্রবি শাখার সভাপতি রাজিবুল হক রজব, সাধারণ সম্পাদক মনিরুল ইসলাম হৃদয়, দপ্তর সম্পাদক রায়হান রহমান রাব্বি সহ  বঙ্গবন্ধু ছাত্র পরিষদের অনান্য নেতাকর্মীরা
উল্লেখ্য গত ০৭ নভেম্বরে বঙ্গবন্ধু ছাত্র পরিষদ কেন্দ্রীয় নির্বাহী সংসদের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি আসিফ জামান রুপম এবং ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক সাকিব মজুমদারের অনুমতিক্রমে এক বছরের জন্য যবিপ্রবিতে প্রথম বঙ্গবন্ধু ছাত্র পরিষদের কমিটি গঠিত হয়।
কেন্দ্রীয় কমিটির ভারপ্রাপ্ত সভাপতি এবং সাধারণ সম্পাদকের স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তিতে পদার্থবিজ্ঞান বিভাগের চতুর্থ বর্ষের শিক্ষার্থী রাজিবুল হক রজবকে সভাপতি ও ফিন্যান্স অ্যান্ড ব্যাংকিং বিভাগের প্রথম বর্ষের শিক্ষার্থী মনিরুল ইসলাম হৃদয় কে সাধারণ সম্পাদক করে এই কমিটির অনুমোদন দেওয়া হয়। কমিটির অন্যান্য সদস্যরা হলেন – সহ-সভাপতি পুষ্টি ও খাদ্য প্রযুক্তি বিভাগের চতুর্থ বর্ষের শিক্ষার্থী ইয়াসির আরাফাত, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক পদার্থবিজ্ঞান বিভাগের তৃতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী শাওন আহমেদ এবং দপ্তর সম্পাদক পদার্থবিজ্ঞান বিভাগের প্রথম বর্ষের শিক্ষার্থী রায়হান রহমান রাব্বি।

বেনাপোলে বাদামী গাছ ফড়িং ও কারেন্ট পোকার আক্রমনে নষ্ট হচ্ছে ধানগাছ

এমএ রহিম, বেনাপোল (যশোর): চলতি আমন মৌসুমে যশোরের শার্শা-বেনাপোলে বাদামী গাছ ফড়িং ও কারেন্ট পোকার আক্রমনে ধানগাছ নষ্ট হয়ে যাচ্ছে। ঔষধ ছিটিয়েও প্রতিকার পাচ্ছেনা চাষীরা। উপজেলার বিভিন্ন মাঠে দেখা দিয়েছে কারেন্ট পোকার প্রাদুর্ভাব। এতে কৃষকেরা পড়েছেন দুশ্চিন্তায়।

পরপর কয়েক বছর ধরে বেনাপোলের সাদিপুর, রঘনাথপুর, বোয়ালিয়া, খড়িডাঙ্গা, গোগাসহ বিভিন্ন মাঠে দেখা দিচ্ছে কারেন্ট পোকার আক্রমন। অনেক মাঠে ধান গাছ ও পাতা শুকিয়ে হলুদ বর্ণ ও ধান কালো হয়ে মরে যাচ্ছে। নষ্ট হচ্ছে ধানগাছ। উস্তাদ ও মাষ্টার নামে ঔষধ ছিটিয়ে পোকা দমনে চেষ্টা চালাচ্ছে কৃষকেরা। তারপরও রক্ষা হচ্ছেনা ধানক্ষেত। একদিকে ধানের দাম কম, অন্যদিকে পোকার আক্রমনে ক্ষতিগ্রস্ত ও দিশেহারা হয়ে পড়ছেন চাষীরা। ধানের দাম বৃদ্ধিসহ সরকারের সহযোগিতা কামনা করছেন তারা।

বেনাপোল সাদিপুর গ্রামের আমন চাষী ফজের আলী ও হাবিবুর রহমান বলেন, ৫বিঘা জমিতে ধান চাষ করে অধিকাংশ জমিতে কারেন্ট পোকায় নষ্ট হয়েছে ধান। যেখানে ৭০ মণ ধান হতো সেখানে ১০ মণ ধানও হবেনা। অনেক কষ্টে দিন কাটবে তাদের।

হাজার হাজার টাকা খরচ করে ধান চাষ করেছেন কৃষকেরা। কারেন্ট পোকার আক্রমনে ধানের গোড়া পঁচে ও শুকিয়ে নষ্ট হয়ে যাচ্ছে। ভালো গাছ হলেও ফলন হচ্ছেনা। ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছেন চাষীরা। খোঁজ খবর নেয় না কৃষি বিভাগ। দুরাবস্থায় আছেন তারা-এমনটাই বলেন অনেক চাষী।

তবে শার্শা উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা সৌতম কমুার শীল বলেন, উপজেলায় অল্প জমিতে হয়েছে বাদামী গাছ ফড়িং, কারেন্ট পোকার আক্রমন। কৃষি দফতরের কর্মকর্তারা ক্ষতিগ্রস্ত মাঠ পরিদর্শন, কৃষকের পরামর্শ, সহযোগিতা, পোকা দমনে প্রচারণা চালাচ্ছেন। ফলে কীটনাশক ব্যবহারে কৃষকেরা ভালো ফল পাচ্ছেন। উপজেলায় ২১ হাজার ৪৮০ হেক্টর জমিতে আমন ধান চাষ হয়েছে বলে জানায় কৃষি বিভাগ।

বেনাপোলে বিষমুক্ত কুমড়া চাষ বেড়েছে দ্বিগুন: স্বচ্ছলতা ফিরছে চাষীদের সংসারে  

বেনাপোল (যশোর) প্রতিনিধি: যশোরের শার্শা বেনাপোলে বিষমুক্ত সবজি মিষ্টি কুমড়া চাষে ব্যাপক সফলতা পেয়েছেন কৃষক আনোয়ার হোসেন। সেক্স ফেরোমন ফাঁদ ব্যবহার করে পোকা মাকড় দমন করায় ফলনও পাচ্ছেন ভাল। কুমড়া চাষে লাভবান হচ্ছেন চাষীরা। দ্বিগুন বেড়েছে কুমড়া চাষ।

যশোরের শার্শা ও বেনাপোলে বাণিজ্যিকভাবে শুরু হয়েছে কুমড়া চাষ। চলতি মৌসুমে আগাম কুমড়া চাষে ফলন হয়েছে ভাল। সেক্স ফেরোমন ফাঁদ ব্যবহার বিষমুক্ত সবজি চাষ বাড়ছে। বিষমুক্ত কুমড়ার চাহিদাও ভাল। ফলে বাজারে কুমড়ার দাম ভাল পাচ্ছেন কৃষকেরা। প্রতিকেজি কুমড়া বিক্রি হচ্ছে ১৫ থেকে ২০ টাকায়। বিষমুক্ত সবজির প্রতি ক্রেতা ও ব্যবসায়িদের চাহিদা থাকায় লাভবান হচ্ছেন চাষীরা। দিনদিন বাড়ছে কুমড়ার চাষ।

শার্শা স্বরুপদাহ গ্রামে কুমড়া চাষী আনোয়ার হোসেন ৫ বিঘা জমিতে করেছেন কুমড়ার চাষ। দাম ও ফলন ভাল পাওয়ায় সংসারে ফিরেছে স্বচ্ছলতা। হচ্ছেন লাভবান। তার দেখে অনেকে করছেন বিষমুক্ত কুমড়া চাষ।

উপজেলা-কৃষি কর্মকর্তা সৌতম কুমার শীল জানান, স্থানীয় বাজারে কুমড়া বিক্রি করে কৃষকেরা মূল্য পায় ভাল। অনেক সময় বিভিন্ন এলাকা থেকে আসা ব্যাপারীরা ক্ষেত থেকে কিনে নিয়ে যাচ্ছে কুমড়া। ফলে বিষমুক্ত কুমড়া চাষে আগ্রহ বাড়ছে চাষীদের। দ্বিগুন বেড়েছে চাষ। এতে সহযোগিতা দিচ্ছেন কৃষি বিভাগ। শার্শা উপজেলায় ১৮০ হেক্টর জমিতে হয়েছে কুমড়া চাষ।

যবিপ্রবিতে ‘ফ্রিজিং স্ট্রেস টলারেন্স ইন প্লান্টস’ শীর্ষক সেমিনার অনুষ্ঠিত

অনলাইন ডেস্ক: যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে (যবিপ্রবি) ফ্রিজিং স্ট্রেস টলারেন্স ইন প্লান্টস: ইটস ইমপর্টেন্স ইন দ্য ইরা অব গ্লোবাল ক্লাইমেট চেঞ্জ’শীর্ষক সেমিনার অনুষ্ঠিত হয়েছে। এ বিষয়ে মূল বক্তব্য দেন জাপানের আইওয়াটি ইউনিভার্সিটির প্লান্টস বায়োসায়েন্স বিভাগের অধ্যাপক ড. ম্যাটসুইও ইউইমুরা।

 

আজ শনিবার দুপুরে যবিপ্রবির বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব একাডেমিক ভবনের গ্যালারিতে বিশ্ববিদ্যালয়ের রিসার্চ সেল এ সেমিনারের আয়োজন করে। এতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন যবিপ্রবির উপাচার্য অধ্যাপক ড. মোঃ আনোয়ার হোসেন। তিনি প্রধান অতিথির বক্তব্যে বলেন, জাপানের আইওয়াটি ইউনিভার্সিটি শিক্ষা ও গবেষণায় অনেক এগিয়ে। আর যবিপ্রবি একটি দ্রুত বিকাশমান বিশ্ববিদ্যালয়। বিশ্বের সঙ্গে শিক্ষা ও গবেষণায় যুক্ত হতে এ বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা সব সময় উদ্গ্রীব। আইওয়াটি ইউনিভার্সিটির সাথে শিক্ষক-শিক্ষার্থী বিনিময়, যৌথভাবে গবেষণা কর্মকান্ড এগিয়ে নিতে আগামীতে আমরা সমঝোতা স্মারক, চুক্তি করতে আগ্রহী। আশা করি, দুই প্রতিষ্ঠান অত্যন্ত ইতিবাচকভাবে আমরা সামনের দিকে এগিয়ে যাব।

 

মূল বক্তব্যে আইওয়াটি ইউনিভার্সিটির প্লান্টস বায়োসায়েন্স বিভাগের অধ্যাপক ড. ম্যাটসুইও ইউইমুরা জাপানে তাঁর বিশ্ববিদ্যালয়ের অবস্থান, শিক্ষা ও গবেষণার সুযোগ প্রভৃতি তুলে ধরেন। একইসঙ্গে মরিওকাতে তাঁর গবেষণা কার্যক্রম, আইস ক্রিস্টাল, তীব্র ঠান্ডায় উদ্ভিদের সহনশীলতার উপাত্তভিত্তিক গবেষণা এবং তাদের অভিযোজন প্রক্রিয়ার নানা দিক তুলে ধরেন।

 

সেমিনারে ‘পরিচিত প্রোটিনের অপরিচিত কার্যাবলী: আর্সেনাইট পরিবহনের একটি নতুন অন্তর্দৃষ্টি’শীর্ষক গবেষণা প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন আইওয়াটি ইউনিভার্সিটির প্লান্টস বায়োসায়েন্স বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ড. আবিদুর রহমান। তিনি আর্সেনিকের ক্ষতিকর প্রভাব কমাতে আর্সেনিক শোষণকারী উদ্ভিদের প্রয়োগ ও তাদের আর্সেনিক শোষণের নানা দিক নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা করেন।

 

অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য দেন জীববিজ্ঞান ও প্রযুক্তি অনুষদের ডিন ড. কিশোর মজুমদার। রিসার্চ সেলের উপদেষ্টা ড. মঞ্জরুল হকের সভাপতিত্বে সেমিনারে যবিপ্রবির ডিনস কমিটির আহ্বায়ক অধ্যাপক ড. মোঃ আনিছুর রহমান, প্রক্টর অধ্যাপক ড. শেখ মিজানুর রহমান, শিক্ষক সমিতির ড. মোঃ ইকবাল কবীর জাহিদ ও সাধারণ সম্পাদক ড. মোঃ নাজমুল হাসান, পরিবেশ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিভাগের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড. সাইবুর রহমান মোল্যাসহ বিভিন্ন অনুষদের ডিন, চেয়ারম্যান ও শিক্ষার্থীবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

পাইকগাছায় আ’লীগ নেতা মুনসুরের বিরুদ্ধে তৃণমুল নেতা-কর্মীদের অভিযোগ

পাইকগাছা (খুলনা) প্রতিনিধি: পাইকগাছা উপজেলার চাঁদখালী ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের আহবায়কের বিরুদ্ধে অবস্থান নিয়ে দলের ত্যাগী নেতা-কমীরা জেলা আওয়ামী লীগের কাছে অভিযোগ দিয়েছেন। বিএনপি থেকে আওয়ামী লীগে যোগদানকারী হাইব্রিড নেতা মুনসুর আলী গাজীকে দল থেকে বহিস্কার করার দাবীতে ত্যাগী নেতাদের গণ স্বাক্ষরিত অভিযোগ পাওয়া গেছে।

অভিযোগ সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার চাঁদখালী ইউনিয়নের সাবেক বিএনপি নেতা ২০১২ সালের ১১ নভেম্বর আ’লীগে যোগদান করেন। যোগদানের কিছুদিনের পর ইউনিয়নের আওয়ামী লীগের আহবায়ক করা হয়। এরপর তিনি দলের ত্যাগি নেতা-কর্মীদের উপর হামলার পাশাপাশি বারবার মামলা দিয়ে হয়রানী করছে। এছাড়া তিনি চাঁদখালী বাজারে সরকারি খাস সম্পত্তি ও কপোতাক্ষ নদের চর ভরাটি জায়গা অবৈধ দখলদারদের দখল করতে প্রত্যক্ষ সহযোগিতা করে আসছে। তার অত্যাচার নির্যাতনে অনেক ত্যাগি নেতা-কর্মীরা ইতোমধ্যে নিস্ক্রিয় হয়ে পড়েছে। তিনি দলের উর্দ্ধতন নেতৃবৃন্দকে অনৈতিক সুবিধা দিয়ে নিজের ক্ষমতা জাহির করছে তৃণমূল কর্মীরা জানিয়েছে। তার বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করতে গেলে হামলা ও মামলার শিকার হতে হয়। চলতি বছর জন্মঅষ্টমীর দিন এক সংখ্যালঘুর বাড়িতে তার মদদে তার আপন ভাই জামায়াত নেতার নেতৃত্বে লাঠিসোঠা নিয়ে হামলা করে। ঘটনার সময় বাড়ির মালিক আ’লীগ নেতা হারান চন্দ্র অধিকারী বাড়িতে না থাকায় তার বাড়িতে ভাংচুর চালিয়ে হত্যার হুমকি দিয়ে মিছিল সহকারে চলে আসে। জীবন ভয়ে দীর্ঘদিন আত্মগোপনে থাকার পর হারান চন্দ্র অধিকারী প্রশাসনের সহযোগিতায় বাড়িতে ফিরে আসে। দলের এই হাইব্রিড নেতাকে দলের কোন পদে না রাখার দাবীতে খুলনা জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক বরাবর অভিযোগ দিয়েছে অত্র ইউনিয়নে দলের ত্যাগি নেতা-কর্মীরা। এ অভিযোগের বিষয়ে মুনসুর আলী গাজী বলেন, আমার বিরুদ্ধে সকল অভিযোগ মিথ্যা।

বেনাপোলে দু’দিনের ভ্যাট মেলা শুরু

বেনাপোল (যশোর) প্রতিনিধি: ‘এলো দেশে নতুন আইন, ভ্যাট হচ্ছে অনলাইন’ ভ্যাট দিচ্ছে জনগন দেশের হচ্ছে উন্নয়ন এই সেøাগানকে সামনে রেখে বুধবার দুপুরে বন্দর নগরী বেনাপোলে শুরু হয়েছে দ’ুদিনব্যাপী ভ্যাট মেলা। প্রধান অতিথি হিসেবে জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের সদস্য (মুসক বাস্তবায়ন ও আইটি) মো. জামাল হোসেন ভ্যাট ফিতে কেটে মেলার উদ্বোধন করেন।

যশোর কাস্টমস এক্সসাইজ ও ভ্যাট কমিশনারেট ও বেনাপোল সিএন্ডএফ এজেন্টস এসোসিয়েশনের যৌথ উদ্যোগে এসোসিয়েশন মিলনায়তনে শুরু হয়েছে এই ভ্যাট মেলা।

বেনাপোল সিএন্ডএফ এজেন্ট এসোসিয়েশনের সভাপতি মফিজুর রহমান সজনের সভাপতিত্বে  ভ্যাট মেলায় বিশেষ অতিথি  ছিলেন, বেনাপোল কাস্টমস কমিশনার মোহাম্মদ বেলাল হুসাইন চৌধুরী, প্রকল্প পরিচালক, ভ্যাট অনলাইন প্রকল্পের কমিশনার সৈয়দ মুশফিকুর রহমান, যশোর কাস্টমস এক্সসাইজ ও ভ্যাট কমিশনারেটর কমিশনার মুহম্মদ জাকির হোসেন,

সম্মানিত করদাতাগণ যাতে সহজে অনলাইন নিবন্ধন গ্রহণ করতে পারেন ও আইনের অধীনে তাদের মৌলিক করণীয় বিষয় সম্পর্কে জানতে পারেন সে বিষয়ের ওপর গুরুত্ব আরোপ করে বক্তব্য রাখেন, বেনাপোল সিএন্ডএফ এজেন্ট এসোসিয়েশনের সিনিয়র সহ-সভাপতি নুরুজ্জামান, বাংলাদেশ-ইন্ডিয়া চেম্বার অবকমার্স এন্ড ইন্ডাস্ট্রির এক্সপোর্ট ইম্পোর্ট সাব কমিটির চেয়ারম্যান মতিয়ার রহমান, সিএন্ড এফ এজেন্ট ফেডারেশনের সাবেক সভাপতি শামসুর রহমান, কাস্টম’র ডিসি আব্দুল আলীম ও সাধারণ সম্পাদক এমদাদুল হক লতা। মেলায় মোট ১০টি স্টল স্থান পায়। ১৩ ডিজিটের ভ্যাট নিবন্ধনের জন্য আমদানি ও রপ্তানিকারক সমিতি, সিএন্ড এফ এজেন্ট এসোসিয়েশন, ট্রান্সপোর্ট এজেন্টস এসোসিয়েশনের সদস্যরা স্টলগুলোতে ভীড় জমায়।

যশোরে ৬ শিশু ধর্ষণ মামলার আসামি সাতক্ষীরার আমিনুরের যাবজ্জীবন

যশোর প্রতিনিধি: যশোরে চাঞ্চল্যকর ছয় শিশু ধর্ষণ মামলার আসামি আমিনুর রহমানকে যাবজ্জীবন দিয়েছে আদালত। যশোরের নারী ও শিশুনির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল ১-এর বিচারক টিএম মুছা বুধবার এ রায় ঘোষণা করেন। এছাড়া আদালত তাকে ২০ হাজার টাকা জরিমানা করেছে। জরিমানা না দিলে তাকে আরও ছয় মাস কারাগারে থাকতে হবে।
সাজাপ্রাপ্ত আসামি আমিনুর সাতক্ষীরার কালীগঞ্জ উপজেলার গড়িমহল গ্রামের হানেফ আলীর ছেলে। যশোর শহরের খড়কি দক্ষিণপাড়া রেললাইনের পাশে এহসানুল হক সেতুর বাগানবাড়ির তত্ত্বাবধায়কের দায়িত্বে থাকার সময় তার বিরুদ্ধে মামলা হয় এ বছর ১ মে। আমিনুর রায় ঘোষণার সময় আদালতের কাঠগড়ায় ছিলেন।
ওই আদালতের পিপি এম ইদ্রিস আলী মামলার নথির বরাতে বলেন, স্থানীয় মাওলানা শাহ আব্দুল করিম (রহ.) খড়কী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিশুছাত্রীরা যাওয়া-আসার পথে ওই বাগানবাড়িতে আম কুড়াতে যেত। সে সময় ওই বাড়ি তত্ত্বাবধায়ক আমিনুর তাদের আম, চকলেট দেওয়াসহ বিভিন্নভাবে লোভ দেখিয়ে ধর্ষণ করেন।
গ্রেপ্তারের পর আমিনুর বিভিন্ন সময় পাঁচ-ছয়জন শিশুছাত্রীকে ধর্ষণের কথা স্বীকার করে আদালতে জবানবন্দি দেন। আর ছয় শিশু যশোরের মুখ্য বিচারিক হাকিম নুসরত জাবীনের আদালতে জবানবন্দি দেয়। তাদের চারজনের ডাক্তারি পরীক্ষা করা হয় যশোর সদর হাসপাতালে।
তদন্ত শেষে যশোর কোতোয়ালি থানার এসআই হায়াত মাহমুদ খান আমিনুরের বিরুদ্ধে আদালতে অভিযোগপত্র দেয়। পিপি ইদ্রিস বলেন, সাক্ষ্য-প্রমাণের ভিত্তিতে আদালত আমিনুরকে দোষী সাব্যস্ত করে এই শাস্তি দিয়েছে। রায় ঘোষণার পর তাকে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

ঝিকরগাছার মাটশিয়া ফুটবল টুর্নামেন্টের ফাইনালে কলারোয়ার কাজিরহাট

নিজস্ব প্রতিনিধি: ঝিকরগাছার বাকড়ার মাটশিয়ায় ৮দলীয় ফুটবল টুর্নামেন্টের ২য় সেমিফাইনাল খেলায় টাইব্রেকারে ৩-২ গোলে কলারোয়ার কাজিরহাট প্রগতি সংঘ জয়লাভ করেছে। মঙ্গলবার বিকালে মাটশিয়া হাইস্কুল ফুটবল মাঠে অনুষ্ঠিত ওই খেলায় স্বাগতিক মাটশিয়া ফুটবল একাদশকে পরাজিত করে নিজেদের ফাইনাল নিশ্চিত করে কাজিরহাট। মাটশিয়া যুব সংঘ আয়োজিত খেলার প্রথমার্ধে ৩মিনিটে মাটশিয়ার ১১ নম্বর জার্সিধারী খেলোয়াড় গোল করে দলকে এগিয়ে নেন। মধ্য বিরতির পর দ্বিতীয়ার্ধের ১০ মিনিটে কাজিরহাটের ৭ নম্বর জার্সিধারী খেলোয়াড় মোমিন গোল করে দলকে সমতায় ফেরান। পরে আক্রমন পাল্টা আক্রমনের মধ্যে ২২ মিনিটে কাজিরহাটের ১০ নম্বর জার্সিধারী খেলোয়াড় মিলন গোল করে দলকে এগিয়ে নেন। ইনজুরির কারণে অতিরিক্ত সময়ের শেষ মুহূর্তে মাটশিয়ার ৬ নম্বর জার্সিধারী খেলোয়াড় গোল করে দলকে সমতায় ফেরান। পরে সরাসরি টাইব্রেকারে ৩-২ গোলে স্বাগতিকদের হারিয়ে কাজিরহাট প্রগতি সংঘ জয়লাভ করে। ম্যাচটি পরিচালনা করেন টিক্কা। বিপুল সংখ্যাক দর্শক খেলাটি উপভোগ করেন।

দুর্নীতি রোধে বেনাপোলে পরামর্শক কমিটির সভা: বন্দরকে আনা হচ্ছে সিসিটিভির আওতায়

বেনাপোল (যশোর) প্রতিনিধি: দেশের প্রধান স্থলবন্দর বেনাপোল কাস্টম ও আইসিপি চেকপোস্ট, আমদানি রপ্তানি বাণিজ্যে স্বচ্ছতা গতি বাড়ানোসহ অনিয়ম দুর্নীতি রোধে পরামর্শক কমিটির সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। এতে বন্দর ও কাস্টমসে গতি ফিরেছে। বাড়ছে রাজস্ব আহরণ। বিভিন্ন অব্যবস্থাপনা রোধে সবার সহযোগিতা কামনা করা হয়েছে।

মঙ্গলবার দুপুরে বেনাপোল কাস্টম হাউজ কনফারেন্স রুমে কমিশনার মোহাম্মদ বেলাল হুসাইন চৌধুরীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় বক্তব্য রাখেন যুগ্ম-কমিশনার সহিদুল ইসলাম, উত্তম চাকমা, বন্দর পরিচালক মামুন তরফদার, সিএন্ডএফ এজেন্ট এসোসিয়েশনের সভাপতি মফিজুর রহমান সজনসহ সভাপত্বি নুরুজামান, যুগ্ম-সম্পাদক জামাল হোসেন, কাস্টম বিষয়ক সম্পাদক নাসির উদ্দিন, বাংলাদেশ ভারত চেম্বার অব কমার্সের উপ-কমিটির চেয়ারম্যান মতিয়ার রহমান, ইমিগ্রেশন ওসি মাসুম হোসেন। কাষ্টম, বন্দর, বিজিবি, পুলিশ ও বিভিন্ন সংগঠনের কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

ক্রেন ফর ক্লিপসহ বিভিন্ন ইকুইপমেন্ট বৃদ্ধি, শনিবার কাজে গতি আনায়ন, কন্টিনাল হ্যান্ডলিংয়ের সিন্ধান্ত, রেলওয়ে আইসিটি স্থাপন, বন্দরকে এনবিআরের সাথে সরাসরি যুক্ত করে সিসি টিভি ক্যামেরার আওতায় আনা, যাত্রী সেবাই দু’দেশের কর্মকর্তাদের সাথে সমন্বয় করে মানবৃদ্ধি, মার্কস নাম্বার বাধ্যতামূলক করা ও পণ্য খালাসে গতি ফেরানো, দ্রুত সময়ের মধ্যে পণ্য খালাসে ব্যর্থ প্রতিষ্ঠানকে অবগত করানো, মেয়াদ উত্তীর্ণ পণ্যের নিলাম বাস্তবায়নের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। এসআই কোটা ওয়াল্ড বাস্তবায়ন, উত্তরা মটর ও টিভিএস মটর আমদানিতে সহযোগিতা বৃদ্ধিসহ আধুনিক মানের ক্রেন সরবরাহের প্রস্তাবনা দেওয়া হয় সভায়। অচিরেই আরো জমি অধিগ্রহণসহ বিভিন্ন শেড এয়ার্ড, ভবন ও রাস্তা সম্প্রসারণের প্রস্তাব করা হয়। যাত্রী হয়রানি রোধে সব ধরনের যোগাযোগ স্থাপনের বিষয়ে আশ্বস্ত করেন কমিশনা বেলাল হুসাইন চৌধুরী।

টানা ৫দিনপর বেনাপোল স্থলবন্দর দিয়ে পুরোদমে আমদানি রপ্তানি শুরু 

বেনাপোল (যশোর) প্রতিনিধি: টানা ৫ দিনপর মঙ্গলবার সকাল থেকে স্থলবন্দর বেনাপোল দিয়ে পুরোদমে শুর হয়েছে আমদানি রপ্তানি। বন্দর হ্যান্ডলিং শ্রমিকসহ বন্দর ব্যাবহারকারীদের মধ্যে ফিরেছে প্রাণচাঞ্চল্য। জোর গতিতে চলছে পণ্য লোড আনলোডের কাজ। দুপুর ২টা পর্যন্ত সাড়ে ৮শ’ ট্রাক পন্য আমদানি রপ্তানি হয়েছে। কয়েক দিনের ক্ষতি পুশিয়ে নিতে বন্দর কাস্টম সিএন্ডএফ প্রতিষ্ঠান আন্তরিকতার সাথে কাজ করছেন।

বেনাপোল স্থলবন্দর পরিচালক (প্রশাসন) মামুন তরফদার জানান, গত বৃহস্পতিবার থেকে ভারতের পেট্টাপোল বন্দরে এন্টারনেট লিংক সমস্যার কারণে সব ধরনের পণ্য আমদানি রপ্তানি বন্ধ হয়ে যায়। বৃহস্পতিবার বিকালে সচল হয় নেট। ফলে রাতে শুরু হয় আমদানি রপ্তানি। মঙ্গলবার সকাল থেকে পুরোদমে কাজকর্ম শুরু হয়েছে বলে জানান তিনি।

শার্শার ধলদায় ফুটবল টুর্নামেন্টে চ্যাম্পিয়ন উলশী

নিজস্ব প্রতিনিধি: যশোরের শার্শা উপজেলার ধলদায় ১৬ দলীয় ফুটবল টুর্নামেন্টের ফাইনালে ২-১গোলে বাঁগআচড়া ইউনিয়ন ফুটবল একাদশকে হারিয়ে চ্যাম্পিয়ন হয়েছে উলশী ফুটবল একাদশ। সোমবার বিকেলে ধলদা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় মাঠে ৯নং উলশী ইউনিয়ন পরিষদ আয়োজিত টুর্নামেন্টের ফাইনাল খেলায় স্মরণকালের বিপুল সংখ্যক দর্শক সমাগম ছিলো লক্ষণীয়। খেলা শুরুর ৫ মিনিটেই বাঁগআচড়া একাদশের ১১ নম্বর জার্সিধারী নাইজেরিয়ান খেলোয়াড় জুলু গোল করে দলকে এগিয়ে নেন। পরে ৩৭ মিনিটের সময় উলশী একাদশের ১১নম্বর জার্সিধারী আরেক নাইজেরিয়ান খেলোয়াড় তিস্তা গোল করে দলকে সমতায় ফেরান। মধ্য বিরতির পরে টানটান উত্তেজনা আর মুহুর্মুহু আক্রমণ পাল্টা আক্রমনের মধ্যে ২৭মিনিটের সময় উলশীর ১০নম্বর জার্সিধারী অপর নাইজেরিয়ান খেলোয়াড় জেরি গোল করে দলকে ২-১ গোলে এগিয়ে নেন। রেফারির শেষ বাঁশি বাঁজার সময় ওই ২-১গোলেই টুর্নামেন্টের শিরোপা নিশ্চিত করে উলশী ফুটবল একাদশ। উভয় দলে ৮জন করে নাইজেরিয়ান খেলোয়াড় অংশ নেন। খেলায় রেফারির দায়িত্ব পালন করেন হুমাইুন কবির। তাকে সহযোগিতা করেন বশির আলি ও সাইফুল ইসলাম। ৪র্থ রেফারি ছিলেন আব্দুল মুজিত। ধারাবিবরনীতে ছিলেন আবু রায়হান, হুমায়ুন কবির ও শামিম আহমেদ রনি। খেলা শেষে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে চ্যাম্পিয়ন, রানার্সআপ ও অন্যান্যদের মাঝে পুরষ্কার বিতরণ করেন যশোর-১ আসনের সংসদ সদস্য আলহাজ্ব আফিল উদ্দিন। খেলা উপভোগ করেন ও পুরষ্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন শার্শা উপজেলা চেয়ারম্যান সিরাজুল ইসলাম মঞ্জু, ভাইস চেয়ারম্যান মেহেদি হাসান, উপজেলা আ’লীগের সাধারণ সম্পাদক নুরুজ্জামান, নাভারণ সার্কেলের সহকারি পুলিশ সুপার জুয়েল ইমরান, যশোর জেলা পরিষদের সদস্য অধ্যক্ষ ইব্রাহিম খলিল, শার্শা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা পুলক কুমার মন্ডল, শার্শা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আতাউর রহমান, চেয়ারম্যান আইনাল হক, চেয়ারম্যান ইলিয়াস কবীর বকুল, বজলুর রহমান, সাংবাদিক হাবিবুর ররহমান রনি, ক্রীড়াপ্রেমী আলী হোসেন, ফজলু রহমান, গৌতম কুমার প্রমুখ। বিজয়ীদের হাতে একটি ফ্রিজ তুলে দেন প্রধান অতিথি সংসদ সদস্য আলহাজ¦ শেখ আফিল উদ্দিন। ফাইনাল খেলায় ম্যান অব দ্যা ম্যাচের পুরষ্কার পান বিজয়ী দলের ১১নং জার্সি পরিহিত নাইজেরিয়ান খেলোয়াড় জুলু। এদিকে, মাঠের চারপাশে বিপুল সংখ্যক উপচে পড়ে পার্শ্ববর্তী গাছ, ভবনে দেখা যায়। খেলা দেখতে এসে পাশের স্কুলের টিনের চাল ভেঙে পড়ে ৩-৪জন আহত হন।